গণজাগরণ মঞ্চের মিছিলে পুলিশের অ্যাকশন; আটক ৪

Gonojagoronগণজাগরণ মঞ্চের কর্মীদের মিছিলে পুলিশ লাঠিপেটা করে এবং চারজনকে আটক করেছে। পাকিস্তানের সঙ্গে কূটনৈতিক সম্পর্ক স্থগিত করার দাবিতে গণজাগরণ মঞ্চের কর্মীরা মিছিল করলে পুলিশ তাদের  আটক করে। এ সময় গণজাগরণ মঞ্চের মুখপাত্র ইমরান এইচ সরকারসহ অন্তত দুইজনকে আহত অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

সরকারকে বেধে দেওয়া ২০ ঘণ্টার আল্টিমেটামের সময় পার হওয়ার পর বৃহস্পতিবার বিকেলে গণজাগরণ মঞ্চের কর্মীরা পাকিস্তান দূতাবাসের দিকে অগ্রসর হলে গুলশান-২ নম্বর এলাকায় এ ঘটনা ঘটে বলে জানা যায়।

মিছিল থেকে গণজাগরণ মঞ্চের মুখপাত্র ইমরান এইচ সরকারকে আটকের চেষ্টা করলে মিছিলকারীদের শুরু হয় দিগ্বিদিক ছুটাছুটি। এ সময় পুলিশ গণজাগরণ মঞ্চের কর্মী রওশন আরা নিপা, অরণ্য আজাদ, মাহমুদুল হাসানকে গাড়িতে তুলে বনানী থানার দিকে নিয়ে যায়।

ইমরান এইচ সরকারকে ল্যাবএইড হাসপাতালে পরে সেখান থেকে ইউনাইটেড হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

গুলশান পুলিশের উপ-কমিশনার খন্দকার লুৎফুল কবির জানান, আজ ভিয়েনা কনভেনশন অনুসারে কূটনৈতিক এলাকায় মিছিল-মিটিং নিষেধ। আর এ কারণেই গণজাগরণ মঞ্চের কর্মীদের সরিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করা হয়েছিল।

ডিএমপির ক্রাইম অ্যান্ড অপারেশনস বিভাগের কর্মকর্তা মো. শাহাবুদ্দিন খান জানান, গণজাগরণ মঞ্চের মিছিলে পুলিশ হামলা করে নি। তাদের সরিয়ে দিয়েছে মাত্র।