ভারতে আটকে থাকা পেঁয়াজে পচন ধরেছে

গত তিন দিনে ভারতীয় পেঁয়াজবোঝাই কোনো ট্রাক যশোরের বেনাপোল বন্দরে প্রবেশ না করায় আটকে থাকা পেঁয়াজ থেকে দুর্গন্ধ ছড়াতে শুরু করেছে।

পেট্রাপোল বন্দরের পেঁয়াজ রপ্তানিকারক ভজন কুমার জানিয়েছেন, ভারতীয় কাস্টমসে গেট পাস করা পেঁয়াজের ট্রাকগুলো আজকের মধ্যে বাংলাদেশে রপ্তানির অনুমতি না দিলে তারা ট্রাকগুলো ফিরিয়ে নিয়ে যাবেন। কেননা, আটকেপড়া পেঁয়াজে পচন ধরা শুরু হয়েছে। এতে তাঁদের মোটা অঙ্কের লোকসান গুনতে হবে।

জানা গেছে, ভারত সরকার পেঁয়াজ রপ্তানি বন্ধ করে দেওয়ায় ফলে বেনাপোলের ওপারে ভারতের পেট্রাপোল বন্দর এলাকায় পেঁয়াজবোঝাই ১৫০টি ট্রাক ও তিনটি রেলের র‍্যাক বাংলাদেশে প্রবেশের অপেক্ষায় দাঁড়িয়ে আছে।

এদিকে পেঁয়াজ আমদানিকারক আবদুল হামিদ জানিয়েছেন, যেসব পেঁয়াজের চালান ওপারে আটকে আছে, শুধু সেসব পেঁয়াজের ট্রাক আজ বুধবার রপ্তানির অনুমতি দেওয়ার সম্ভাবনা আছে।

বেনাপোল বন্দরের পরিচালক মামুন তরফদার জানিয়েছেন, ভারতীয় বন্দর ও কাস্টমসের সঙ্গে তাঁদের একাধিকবার যোগাযোগ হয়েছে। তাঁরা বলেছেন, ওপারে বন্দরে আটকে থাকা পেঁয়াজ রপ্তানি করার কোনো নির্দেশনা তাঁরা এখন পর্যন্ত পাননি। তবে নতুন করে নির্ধারিত পেঁয়াজের রপ্তানিমূল্য প্রতি টন ২১৮ ডলার থেকে বাড়িয়ে ৭৫০ মার্কিন ডলারে এলসি সংশোধন করা হলে আজই রপ্তানি করা সম্ভব।

এদিকে বেনাপোল বন্দর এলাকায় অতিরিক্ত মূল্যে পেঁয়াজ বিক্রি বন্ধ করতে দুটি ভ্রাম্যমাণ আদালত সার্বক্ষণিক বাজার মনিটর করছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। এরই মধ্যে অতিরিক্ত মূল্যে পেঁয়াজ বিক্রির অভিযোগে তিনজন পেঁয়াজ ব্যবসায়ীকে ৩০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

অর্থসূচক/এএইচআর