হাত স্যানিটাইজ করে ঘুষ নেওয়া ওসি স্ট্যান্ড রিলিজ

করোনা ভাইরাসের সংক্রমণের ভয়ে হাত জীবাণুমুক্ত করে ঘুষ গ্রহণের ভিডিও ভাইরাল হওয়া লালমনিরহাট সদর থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাহফুজ আলমকে স্ট্যান্ড রিলিজ করা হয়েছে। স্ট্যান্ড রিলিজ হওয়া ওসিকে ট্যুরিস্ট পুলিশ পরিদর্শক হিসেবে ঢাকায় পদায়ন করা হয়েছে।

এ তথ্য নিশ্চিত করেন লালমনিরহাট জেলার পুলিশ সুপার (এসপি) আবিদা সুলতানা।

জানা গেছে, সম্প্রতি একটি পারিবারিক মামলায় বাদীপক্ষকে ফাঁসাতে আসামিপক্ষকে পরামর্শ ও মামলা নেওয়ার প্রতিশ্রুতিতে ১০ হাজার টাকা ঘুষ গ্রহণ করেন ওসি মাহফুজ। এ টাকা গ্রহণ করার আগে ওসি মাহফুজ নিজে এবং ঘুষদাতার হাত জীবাণুমুক্ত করেন। এমন একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভাইরাল হয়। পরে সেই খবর বিভিন্ন গণমাধ্যমে উঠে আসে।

ফাঁস হওয়া ভিডিওতে দেখা যায়, একটি মারামারি মামলার আসামিপক্ষের লোকজনের কাছ থেকে ঘুষ গ্রহণ করেছেন ওসি। মামলার আসামিকে তিনি গ্রেফতার না করে উল্টো বাদীকেই হয়রানি করতে ঘুষ গ্রহণ করতে দেখা যায় ওসিকে।

ভিডিওতে আরও দেখা যায়, লালমনিরহাট সদর থানায় নিজের কক্ষে বসে আছেন ওসি। আর দর্শনার্থীদের চেয়ারে বসে থাকা দুইজনের কণ্ঠ শোনা যাচ্ছে অডিওতে। অপরপ্রান্তে থাকা দু’জনের সঙ্গে কথা বলছেন ওসি। ওসি মাহফুজ আলম তার অফিসকক্ষে মারামারির মামলায় প্রধান অভিযুক্তকে বাদীপক্ষের বিরুদ্ধে কখন কী মামলা করতে হবে, কীভাবে শায়েস্তা করতে হবে, সে বিষয়ে পরামর্শ দিচ্ছেন। মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তাকে টাকা দিতে বলছেন। টাকা পয়সা লেনদেনের সময় ওসিকে হ্যান্ড স্যানিটাইজার দিয়ে নিজের এবং ঘুষদাতার হাত স্যানিটাইজ করে নিতে দেখা যায়।

এ বিষয়ে ওসি মাহফুজ আলম বলেন, মামলার বিষয় নিয়ে অনেকেই পরামর্শ করতে আসেন। এর আগেও এসেছেন। ভিডিওতে ১০ হাজার টাকা ঘুষ নেওয়ার বিষয়টি জানতে চাইলে তিনি বলেন ‘এটি একটি ষড়যন্ত্র মাত্র’।

 

অর্থসূচক/এএইচআর