শীতে করোনার প্রকোপ আরো বাড়তে পারে: স্বাস্থ্যের ডিজি

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের নতুন মহাপরিচালক (ডিজি) অধ্যাপক ডা. আবুল বাসার মোহাম্মদ খুরশীদ আলম বলেছেন, আশঙ্কা আছে শীতে করোনার প্রকোপ আরো বাড়তে পারে। সেজন্য পরিকল্পনা তৈরি করা হবে। যাতে আমাদের দেশে এটা ব্যাপক আকার ধারণ করতে না পারে।


তিনি বলেন, করোনায় সারা দেশে বিপুল সংখ্যক চিকিৎসক ও স্বাস্থ্য কর্মী আক্রান্ত হলেও স্বাস্থ্যসেবা ভেঙে পড়ার কোনো আশঙ্কা নেই।

আজ মঙ্গলবার (১১ আগস্ট) দুপুরে স্বাস্থ্যের নতুন ডিজি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সমাধি সৌধের বেদিতে শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে এসব কথা বলেন।

সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে অধ্যাপক ডা. আবুল বাসার মোহাম্মদ খুরশীদ আলম বলেন, সারা বিশ্বের সঙ্গে বাংলাদেশও করোনা ভ্যাকসিন পাবে। ভ্যাকসিন উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠান গ্যাভীর সাথে প্রধানমন্ত্রীর চুক্তি হয়েছে। গ্যাভী সারা বিশ্বে ভ্যাকসিন সরবরাহ করবে।

তিনি বলেন, বাংলাদেশ কিভাবে আগে ভ্যাকসিন পাবে সে সম্পর্কে প্রধানমন্ত্রী স্বাস্থ্য অধিদপ্তরকে দিক নির্দেশনা দিয়েছেন। আমরা তাদের সাথে সার্বক্ষণিক যোগাযোগ রাখছি। ভ্যাকসিন আসলে সবার আগে ফ্রন্টলাইনার্সদের দেওয়া হবে। পরে গুরুত্ব অনুযায়ী অন্যদের দেওয়া হবে।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের নতুন মহাপরিচালক আরও বলেন, দেশে করোনা টেস্টের জন্য পর্যাপ্ত কিট মজুত আছে। কিটের কোনো সংকট নেই। আর করোনা পরীক্ষা করার জন্য সারা দেশে ৮০টি পিসিআর ল্যাব স্থাপন করা হয়েছে। প্রয়োজন হলে আরও পিসিআর ল্যাব স্থাপন করা হবে।

এর আগে তিনি জাতির পিতার সমাধি সৌধের বেদিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করে শ্রদ্ধা জানান। পরে ফাতেহা পাঠ ও বিশেষ মোনাজাত করে বঙ্গবন্ধু এবং ৭৫ এর ১৫ আগস্ট নিহত শহীদের আত্মার মাগফেরাত কামনা করেন।

তিনি বঙ্গবন্ধু ভবনে রক্ষিত পরিদর্শন বইতে মন্তব্য লেখে স্বাক্ষর করে। এরপর তিনি টুঙ্গিপাড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও শেখ সায়েরা খাতুন মেডিকেল কলেজ পরিদর্শন করেন।

এ সময় শেখ সায়েরা খাতুন মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর ডা. লিয়াকত হোসেন, সিভিল সার্জন ডা. নিয়াজ মোহাম্মদ, গোপালগঞ্জ ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালের সহকারী পরিচালক ডা. অসিত কুমার মল্লিকসহ চিকিৎসকগণ উপস্থিত ছিলেন।

অর্থসূচক/কেএসআর