শনিবার, অক্টোবর ৩১, ২০২০
Home App Home Page সুশান্তের সঙ্গে সেই কথোপকথন ফাঁস করল রিয়া

সুশান্তের সঙ্গে সেই কথোপকথন ফাঁস করল রিয়া

সুশান্তের সঙ্গে সেই কথোপকথন ফাঁস করল রিয়া

বলিউডের জনপ্রিয় নায়ক সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুর ইস্যু নিয়ে বলিউড ইন্ডাস্ট্রি সরব। পুলিশ এই মৃত্যুর রহস্য নিয়ে কাজ করে যাচ্ছে। মাত্র ৩৪ বছর বয়সে এই অভনেতার মৃত্যুর শোক প্রতিটি সিনেমাপ্রেমী মানুষের হৃদয় ভেঙে দিয়েছে। অনেকেই দাবি করছেন- আত্মহত্যা করলেও মূলত সুশান্তকে মৃত্যুর দিকে ঠেলে দেওয়া হয়েছে। যা এক প্রকার খুন। আর এই খুনের দায় স্বজনপ্রীতিতে আক্রান্ত বলিউডের।

এদিকে সুশান্ত সিং রাজপুতের সঙ্গে তার হোয়্যাটসঅ্যাপ চ্যাট আগেই তদন্তকারীদের হাতে তুলে দিয়ে ছিলেন অঙ্কিতা লোখন্ডে। এবার সুশান্তের সঙ্গে হোয়্যাটসঅ্যাপ চ্যাটের একটি স্কিনশট শেয়ার করলেন রিয়া চক্রবর্তী। যেখানে সুশান্ত তার রানিদিদি প্রিয়াঙ্কার ব্যবহারে দুঃখ প্রকাশ করেছেন প্রেমিকা রিয়া চক্রবর্তীর কাছে।

সেই চ্যাটে রিয়া ও তার ভাই সৌভিকের প্রশংসা করে বলেন, তোমাদের এপিক ফ্যামিলি। সৌভিক খুবই সহানুভূতিশীল। তুমিও তাই। আমার এই এত পরিবর্তন শুধুমাত্র তোমার জন্যই। তুমি এবং তোমার পরিবার আমাকে ঘিরে রয়েছ, এটা আমার কাছে খুবই আনন্দদায়ক। তোমার কাছে থাকতে পেরে আমি নিজেকে ভাগ্যবান মনে করি। তুমিই আসল রকস্টার।

এরপর অন্য একটি মেসেজে তিনি লেখেন, তুমি প্লিজ একটু হাসো। হাসলে তোমায় খুব সুন্দর দেখায়। আমি এখন ঘুমোনোর চেষ্টা করছি। আমি চাই জামিলার মতো একটা স্বপ্ন দেখতে।

সুশান্ত আবারও লেখেন, দিদির ব্যবহার নিয়ে তিনি চিন্তিত। দিদি যেভাবে উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে সিদ্ধার্থকে ব্যবহার করার চেষ্টা করছেন তা খুবই খারাপ লেগেছে। রানিদিদি আসলে ধান্দাবাজ।

এছাড়াও সুশান্ত তার দিদিকে লিখেছিলেন, ওই পার্টিতে মদ্যপানের পর তুমি রিয়ার শ্লীলতাহানির চেষ্টা করেছিলে। আমার জন্য যা খুবই লজ্জাজনক।

কিন্তু কয়েকদিন আগেই সুশান্তের পারিবারিক আইনজীবী বিকাশ সিং বলেন, দুই ভাইবোনকে আলাদা করতেই এই মাইন্ড গেম খেলেছিলেন রিয়া। পরে সুশান্ত তা বুঝতে পারেন এবং দিদির কাছে ক্ষমাও চেয়ে নেন। বিকাশ বলেন, সেদিন পার্টির শেষে প্রিয়াঙ্কা লক্ষ্য করেন সুশান্তের কার্ড দিয়েই পার্টির খরচ মেটাচ্ছে রিয়া।

এর আগে সুশান্তের ডায়েরির কিছু পাতা ছেঁড়া পাওয়া গিয়েছিল। সেই প্রসঙ্গে রিয়া বলেছিলেন, সুশান্ত তার ও তার পরিবার সম্পর্কে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে একটি বার্তা লিখেছিলেন। তাই তিনি ছিঁড়ে রেখে দিয়েছেন। এছাড়াও লেখা পছন্দ না হলে ছিঁড়ে ফেলা ছিল সুশান্তের অভ্যাস।

শুক্রবার রিয়াকে টানা ৮ ঘণ্টা জেরা করে ইডি। শনিবার ফের জেরা করা হয় তার ভাইকেও। সোমবার জেরা করার কথা রয়েছে রিয়ার বাবাকে। অনেক প্রশ্নের উত্তর এড়িয়ে যাচ্ছেন রিয়া। ১১ অগস্ট গ্রেফতার করা হতে পারে তাকে। এমনকী সিদ্ধার্থ পিঠানীর বয়ানেও সন্দেহ জাগছে ইডি কর্তাদের। তাদের মনে হয়েছে রিয়ার সঙ্গে সিদ্ধার্থের এমন কোনো সম্পর্ক ছিল যা জানতেন না সুশান্ত।

অর্থসূচক/এএইচআর