আরও ২৬১১ জন করোনায় আক্রান্ত হিসেবে শনাক্ত

দেশে নভেল করোনাভাইরাসের (কোভিড-১৯) সংক্রমণ একই ধারায় বাড়ছে। নতুন শনাক্ত রোগীর সংখ্যা গত চারদিন ধরে আড়াই হাজার থেকে তিন হাজারের মধ্যে অবস্থান করছে। নতুন শনাক্ত রোগীর সংখ্যা কোনো দিন সামান্য কমলেও পরদিন বেড়ে যাচ্ছে। পরীক্ষার বিপরীতে করোনা-পজেটিভের হার এখনো ২০ শতাংশের উপরে।

গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে ২ হাজার ৬১১  নতুন রোগী শনাক্ত হয়েছে। আগের সাত দিনে দেশে যথাক্রমে ২৮৫১, ২৯৭৭, ২৬৫৪, ১৯১৮, ১৩৫৬, ৮৮৬ ও ২১৯৯ জন রোগী শনাক্ত হয়েছে।

সর্বশেষ তথ্য অনুসারে- দেশে নভেল করোনা ভাইরাসে (কোভিড-১৯) মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ২ লাখ ৫৫ হাজার ১১৩ জন।

গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে মোট ১১ হাজার ৭৩৭ টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। আর পরীক্ষাকৃত এসব নমুনার ২২ দশমিক ২৫ শতাংশের মধ্যে করোনা ভাইরাসের উপস্থিতি পাওয়া গেছে।

গতকাল ১২ হাজার ৬৯৯ টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছিল। এখন পর্যন্ত দেশে মোট ১২ লাখ ৪৯ হাজার ৫০৭ টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। আর মোট পরীক্ষার ২০ দশমিক ৩৭ পজেটিভ।

আজ শনিবার (৮ আগস্ট) দুপুরে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের নিয়মিত অনলাইন বুলেটিনে সংস্থাটির অতিরিক্ত মহাপরিচালক ডা. নাসিমা সুলতানা এসব তথ্য জানিয়েছেন।


একনজরে দেশের করোনার চিত্র

নতুন করে শনাক্ত হয়েছেন: ২৬১১ জন

মোট আক্রান্তের সংখ্যা: ২৫৫১১৩ জন

২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু হয়েছে: ৩৩ জনের

মোট মৃত্যু হয়েছে: ৩৩৬৫ জনের

২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন: ১০২০ জন

মোট সুস্থ হয়েছেন: ১৪৬৬০৪ জন


গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে ৩২ জন মারা গেছেন। গত ৩০ জুন দেশে সর্বোচ্চ ৬৪ জনের মৃত্যু হয়েছিল। এরপর ২৬ জুলাই দেশে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ৫৪ জনের মৃত্যু হয়। এর আগে গত ১৬ জুন করোনায় মারা গিয়েছিলেন ৫৩ জন।

গত সাত দিনে করোনা ভাইরাসে মারা গেছেন যথাক্রমে ২৭, ৩৯ ৩০, ৫০, ৩০, ২২ ও ২১ জন।

সর্বশেষ তথ্য অনুসারে মোট মৃত্যুর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৩ হাজার ৩৬৫ জনে। মোট শনাক্তকৃত রোগীর বিপরীতে মৃত্যুর হার ১ দশমিক  ৩২ শতাংশ।

গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে আরও ১ হাজার ২০ জন সুস্থ হয়েছেন বলে জানানো হয়েছে। দেশে এখন পর্যন্ত করোনা থেকে মোট সুস্থ হয়েছেন ১ লাখ ৪৬ হাজার ৬০৪ জন। মোট শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থতার হার ৫৭ দশমিক ৪৭ শতাংশ।