থানায় বিস্ফোরণ: কেটে ফেলা হলো রিয়াজের ক্ষতবিক্ষত কবজি

রাজধানীর মিরপুরের পল্লবী থানায় বিস্ফোরণের ঘটনায় আহত রিয়াজের অবস্থা গুরুতর। তার বাম হাতের কবজি বিস্ফোরণে ক্ষতবিক্ষত হয়ে যাওয়ায় অস্ত্রোপচারের সময় কেটে ফেলা হয়েছে।

আজ বুধবার (২৯ জুলাই) ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের জরুরি বিভাগের আবাসিক সার্জন ডা. মোহাম্মদ আলাউদ্দিন গণমাধ্যমকে এ তথ্য জানান।

এদিন ভোরে তিন আসামিকে গ্রেফতার করে থানায় নিয়ে আসে পুলিশ। তাদের থানায় আনার পর আসামিদের কাছে থাকা একটি ডিজিটাল ওয়েট মেশিন থেকে বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে।

ঢামেকের ওই চিকিৎসক বলেন, পল্লবী থানায় বিস্ফোরণের ঘটনায় আহত ৫ জন হাসপাতালে এসেছিলেন। এর মধ্যে দুজন প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়ে চলে গেছেন। একজনকে চক্ষু হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। পুলিশ কর্মকর্তা রুমি ও সিভিল রিয়াজকে ভর্তি রাখা হয়েছে। রিয়াজের বাম হাতের কবজি কেটে ফেলা হয়েছে। এছাড়া তার ডান হাতের একটি আঙুল ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ায় সেটিও রাখা যায়নি। তার পেটে বড় ধরনের ইনজুরি আছে। আর পুলিশ কর্মকর্তা রুমির পায়ে ও হাতে ইনজুরি আছে।

আহত রিয়াজ পল্লবী থানায় সিভিল হিসেবে কাজ করতেন বলে জানিয়েছেন ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের উপ-কমিশনার (ডিসি-মিডিয়া) ওয়ালিদ হোসেন।

অর্থসূচক/কেএসআর