ঘরে বসেই ভ্যাট পরিশোধে ই-পেমেন্ট সিস্টেম উদ্বোধন

কম সময়ে সরকারি কোষাগারে ভ্যাট পরিশোধে ই-পেমেন্ট ব্যবস্থা আনুষ্ঠানিকভাবে চালু করেছে জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর)। এখন থেকে ঘরে বসেই অনলাইনে ব্যবসা প্রতিষ্ঠানগুলো ভ্যাটের টাকা জমা দিতে পারবে।

আজ বৃহস্পতিবার (১৬ জুলাই) বেলা ১২টার দিকে অভ্যন্তরীণ সম্পদ বিভাগের সিনিয়র সচিব ও জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের চেয়ারম্যান আবু হেনা মো. রহমাতুল মুনিম ই-পেমেন্ট সিস্টেম আনুষ্ঠানিকভাবে উদ্বোধন করেন।

জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের সম্মেলন কক্ষে আয়োজিত উদ্বোধনী অনুষ্ঠান এনবিআর চেয়ারম্যান বলেন, ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনির্মাণের ঘোষণা বাস্তবায়নের অংশ হিসেবে ই-পেমেন্ট মডিউল চালু হয়েছে। ভ্যাট সংক্রাস্ত সব কর ই-পেমেন্টের মাধ্যমে দেওয়া যাবে। আপাতত তিনটি ব্যাংকের মাধ্যমে পেমেন্ট দেওয়া যাবে। তবে আগামী ডিসেম্বরের মধ্যে বাংলাদেশের সব ব্যাংক থেকে ই-পেমেন্ট করা যাবে।

ভ্যাট নিবন্ধন পদ্ধতি আওতায় নিবন্ধিত ব্যক্তি নিজস্ব ব্যাংক হিসাব হতে সরাসরি ভ্যাট ও সম্পূরক শুল্কসহ যে কোনো প্রদেয় কর সহজে, ঝুঁকিমুক্ত অবস্থায় এবং কম সময়ে সরকারি কোষাগারে পরিশোধ করতে পারবেন।

সোমবার (১৩ জুলাই) এনবিআর থেকে এ সংক্রান্ত আদেশ জারি করেছে। ইন্টিগ্রেটেড ভ্যাট অ্যাডমিনিস্ট্রেশন সিস্টেম (আইভাস) থেকে পাঠানো কর পরিশোধ সংক্রান্ত ইলেকট্রনিক নোটিফিকেশনকে ট্রেজারি চালানের বিকল্প হিসেবে এমন আদেশ জারি করা হয়।

এনবিআরের আদেশে বলা হয়, ডিজিটাল বাংলাদেশ বির্নিমাণের প্রত্যয়ে এবং ব্যবসাবান্ধব ও করদাতাবান্ধব ব্যবসার পরিবেশ সৃষ্টির লক্ষ্যে এনবিআর প্রতিনিয়ত স্বয়ংক্রিয় এবং অনলাইনভিত্তিক কর ব্যবস্থা প্রবর্তনের জন্য কাজ করছে। তারই ধারাবাহিকতায় করদাতাদের অনলাইনে কর পরিশোধ করার সুবিধার্থে ভ্যাট অনলাইন প্রকল্প হতে ইতোমধ্যে ইন্টিগ্রেটেড ভ্যাট অ্যাডমিনিস্ট্রেশন সিস্টেমের (আইভাস) মাধ্যমে ই-পেমেন্ট ব্যবস্থা প্রবর্তন করা হয়েছে। এ স্বয়ংক্রিয় ব্যবস্থার ফলে করদাতাদের ব্যাংকে উপস্থিত হয়ে ট্রেজারি চালানের মাধ্যমে সরকারি কোষাগারে অর্থ জমা দিতে হবে না। বরং দ্রুততম সময়ের মধ্যে করদাতারা যেকোনো স্থান থেকে অনলাইনে কর পরিশোধ করতে পারবেন। এতে করদাতাদের সময় ও ব্যয় উভয়ই সাশ্রয় হবে।

আদেশে আরও বলা হয়, ই-পেমেন্ট কার্যক্রমকে গতিশীল করার লক্ষ্যে আইভাস সিস্টেম হতে করদাতার অনুকূলে পাঠানো কর পরিশোধ সংক্রান্ত ইলেক্ট্রনিক নোটিফিকেশনে উল্লিখিত চালান নাম্বার, তারিখ, কমিশনারেটের কোড এবং জমা করা অর্থের পরিমাণ হিসাব মহানিয়ন্ত্রকের কার্যালয়ের অনলাইন সিস্টেম হতে যাচাইপূর্বক সঠিক পাওয়া গেলে সেক্ষেত্রে তা ট্রেজারি চালানের বিকল্প হিসেবে গ্রহণ করার অনুমোদন দেওয়া হলো।

অর্থসূচক/এমআরএম/কেএসআর