করোনা টিকার আবিষ্কারে আশার আলো দেখাচ্ছে মডার্না
রবিবার, ৯ই আগস্ট, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » App Home Page

করোনার টিকা আবিষ্কারে আশার আলো দেখাচ্ছে মডার্না

কোভিড-১৯-এর বিরুদ্ধে সংগ্রামে বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তে টিকা আবিষ্কারের লক্ষ্যে পুরোদমে কাজ চলছে৷ এরই মধ্যে আশার আলো দেখাচ্ছে মার্কিন বায়োটেক কোম্পানি মডার্না৷ আগামী ২৭ জুলাই থেকে সেই কোম্পানি মানুষের উপর এই টিকা পরীক্ষার চূড়ান্ত পর্যায়ে প্রবেশ করবে বলে ঘোষণা করেছে৷

প্রতীকী ছবি

মডার্না আরও জানিয়েছে, এই টিকা নিলে মানুষের সুরক্ষা কতটা নিশ্চিত করা সম্ভব, এই পর্যায়ে তা বোঝা যাবে৷ এই টিকা আরএনএ বা জিন-ভিত্তিক প্রথম টিকাগুলোর অন্যতম৷ ফলে এই উদ্যোগ সফল হলে প্রথাগত টিকার তুলনায় অনেক দ্রুত বড় আকারের উৎপাদন শুরু করা সম্ভব৷

জুলাই মাসের শেষ থেকে মডার্না কোম্পানির তৃতীয় পর্যায়ের পরীক্ষায় মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ৩০ হাজার মানুষকে টিকা দেওয়া হবে৷ তাদের মধ্যে অর্ধেক ১০০ মাইক্রোগ্রাম ডোজের টিকা পাবেন এবং বাকি অর্ধেক প্লসিবো বা কার্যকর নয়, এমন ‘নকল’ টিকা পাবেন৷ তারপর গবেষকরা দুই বছর ধরে সেই ব্যাক্তিদের উপর নজর রাখবেন৷ তাদের মধ্যে কেউ আক্রান্ত হলে পরীক্ষা করে দেখা হবে, যে মডার্না কোম্পানির টিকা আদৌ কোভিড-১৯-এর উপসর্গ প্রতিরোধ করতে পেরেছে কিনা৷ এই রোগের মারাত্মক রূপ থেকে মানুষ রক্ষা পেলেই টিকাটিকে সফল হিসেবে গণ্য করা হবে৷ এই গবেষণার মেয়াদ ২০২২ সালের ২৭ অক্টোবর পর্যন্ত হলেও তার অনেক আগে প্রাথমিক ফলাফল জানা যাবে বলে আশা করা হচ্ছে৷

এদিকে টিকা তৈরির ক্ষেত্রে মডার্না-সহ কিছু কোম্পানির অগ্রগতি সত্ত্বেও বিজ্ঞানীরা উচ্ছ্বাস সম্পর্কে সতর্ক করে দিচ্ছেন৷ তাঁদের মতে, বাজারে প্রথমে যে সব টিকা আসবে সেগুলো সবচেয়ে কার্যকর ও নিরাপদ নাও হতে পারে৷ আপাতত মাত্র ৪৫ জনের উপর পরীক্ষা চালিয়ে মডার্না যে সাফল্য পেয়েছে, বৃহত্তর পরিসরে সেই সাফল্য এখনই আশা করা যাচ্ছে না৷ তাছাড়া এই টিকার পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া নিয়েও সংশয় রয়েছে, যদিও টিকার ক্ষেত্রে এমনটা স্বাভাবিক বলে দাবি করা হচ্ছে৷

এমআরএনএ-১২৭৩ নামের এই পরীক্ষামূলক টিকা প্রথম পর্যায়ে ১৮ থেকে ৫৫ এবং দ্বিতীয় পর্যায়ে ৫৫ বছরের বেশি বয়সী মানুষের উপর প্রয়োগ করা হয়েছে৷ বিভিন্ন বয়সের মানুষের উপর এই টিকার প্রভাব নিয়ে এখনো অস্পষ্টতা রয়ে গেছে৷ তাছাড়া এই কোম্পানির আচরণের ভিত্তিতে বাণিজ্যিক স্বার্থ নিয়েও প্রশ্ন উঠছে৷ বিনামূল্যে অথবা নামমাত্র মূল্যে টিকা গোটা বিশ্বের মানুষের নাগালে আনার ক্ষেত্রে এমন উদ্যোগ কতটা আন্তরিক, অনেকে সেই প্রশ্নও তুলছেন৷ সূত্র: এএফপি, ডিডব্লিউ

অর্থসূচক/এএইচআর

এই বিভাগের আরো সংবাদ