ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট বলসোনারো করোনায় আক্রান্ত
বুধবার, ১২ই আগস্ট, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » App Home Page

ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট বলসোনারো করোনায় আক্রান্ত

করোনাকালে বিশ্বের বিতর্কিত রাষ্ট্র প্রধানদের অন্যতম ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট জাইর বলসোনারো নভেল করোনাভাইরাসে (কোভিড-১৯)আক্রান্ত হয়েছেন।আজ মঙ্গলবার (৭ জুলাই) তার দেহে করোনার উপস্থিতি শনাক্ত হয়েছে। বলসোনারো নিজেই সাংবাদিকদেরকে এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

খবর বিবিসি, গার্ডিয়ান ও সিএনবিসি

জানা গেছে, গত রোববার থেকে ব্রাজিল প্রেসিডেন্ট জাইর বোলসোনারোই এবার উচ্চ মাত্রার জ্বর,শ্বাসে সমস্যাসহ বিভিন্ন করোনা উপসর্গে ভুগছিলেন।এর প্রেক্ষিতে তার নমুনা পরীক্ষা করা হয়। রিপোর্ট আসে পজেটিভ।

অবশ্য এর আগেও তিনবার তার নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছিল। কিন্তু তখন প্রতিটি পরীক্ষার রেজাল্ট এসেছিল নেগেটিভ।

মঙ্গলবার (৭ জুলাই) আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম বিবিসির প্রতিবেদন থেকে এ তথ্য জানা যায়।

করোনা সংক্রমণ ও মৃত্যুর দিক দিয়ে বিশ্বে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ অবস্থানে আছে ব্রাজিল।দুই মাসেরও কম সময়ে তাদের অবস্থার এতটা অবনতি ঘটেছে। আর এর কারণ হিসেবে সরকারের ভুলনীতি,বিশেষ করে প্রেসিডেন্ট বলসোনারো’র গোয়ার্তুমি,করোনা ভাইরাসকে সাধারণ সর্দি-কাশি-জ্বরের মতো ফ্লু সংক্রমণ হিসেবে অভিহিত করে লকডাউনের মতো কঠোর প্রতিরোধমূলক ব্যবস্থা নিতে অস্বীকৃতি ইত্যাদিকে দায়ী করা হয়ে আসছে। মার্চের শুরুর দিক থেকে তৎকালীন স্বাস্থ্যমন্ত্রী লকডাউনসহ কঠোর স্বাস্থ্যবিধি আরোপ করার জন্য প্রেসিডেন্টকে চাপ দিচ্ছিলেন। সে কারণে তাকে বরখাস্ত করেন প্রেসিডেন্ট বলসোনারো।পরের স্বাস্থ্যমন্ত্রীও করোনা পরীক্ষা সংক্রান্ত বিরোধের প্রেক্ষিতে পদত্যাগ করেন।

সাধারণভাবে অভিযোগ আছে,দেশের প্রভাবশালী ব্যবসায়ীদের স্বার্থে প্রসিডেন্ট বলসোনারো শুরু থেকেই অনেকটা জোর করে করোনা ভাইরাসকে সাধারণ ভাইরাস জ্বর হিসেবে দেখানোর চেষ্টা করে এসেছেন।করোনার মহামারি মোকাবেলায় দেশে যখন লডডাউনের দাবি উঠে তখন তিনি নিজে লকডাউন বিরোধী মিছিলে নেতৃত্ব দিয়েছেন। করোনার বিস্তার ঠেকাতে ন্যুনতম চেষ্টা না থাকায় ব্রাজিলে ঝড়ের গতিতে বাড়তে থাকে নতুন সংক্রমণ। এর ফলে দুই মাসেরও কম সময়ে শীর্ষ ২০ দেশের বাইরে থাকা ব্রাজিল আক্রান্তের তালিকায় দ্বিতীয় স্থানে উঠে আসে।দেশটিতে করোনায় বিপুল সংখ্যক মানুষের মৃত্যু নিয়মতি হয়ে উঠে।

এই বিভাগের আরো সংবাদ