বেসরকারি ঋণে প্রবৃদ্ধি কিছুটা বেড়েছে
শুক্রবার, ৭ই আগস্ট, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » App Home Page

বেসরকারি ঋণে প্রবৃদ্ধি কিছুটা বেড়েছে

এক মাসের ব্যবধানে সামান্য বেড়েছে ব্যাংকের বেসরকারি ঋণ প্রবৃদ্ধি। চলতি বছরের মে শেষে গত বছরের একই সময়ের তুলনায় ৮ দশমিক ৮৬ শতাংশ প্রবৃদ্ধি অর্জন হয়েছে। গত মাসে (এপ্রিল) যা ছিল ৮ দশমিক ৮২ শতাংশ। সংশ্লিষ্টদের মতে, বেসরকারি খাতের ঋণ বিতরণ যতটুকু বেড়েছে তা গত মাসের তুলনায় খবই সামান্য। দেশের এই অবস্থা থেকে উত্তরণের জন্য এর দিগুণেরও বেশি বেসরকারি খাতে ঋণ বিতরণের প্রয়োজন। যাতে করে বেশি বেশি কর্মসংস্থান তৈরি হবে।

বাংলাদেশ ব্যাংকের তথ্য অনুযায়ী, এপ্রিল মাসে বেসরকারি ঋণের প্রবৃদ্ধি ৮ দশমিক ৮২ শতাংশে নেমে আসে। আগামী ৩০ জুন শেষ হতে যাওয়া ২০১৯-২০ অর্থবছরের মুদ্রানীতিতে এই ঋণের প্রবৃদ্ধির প্রাক্কলন করা হয় ১৪ দশমিক ৮০ শতাংশ। গত ২০১৮-১৯ অর্থবছর শেষে বেসরকারি খাতে ঋণের প্রবৃদ্ধি ছিল ১১ দশমিক ৩২ শতাংশ। আর সরকারের ঋণের প্রবৃদ্ধি ছিল ১৯ দশমিক ৩৭ শতাংশ।

মন্থর গতির কারণে গত বছরের ৩১ জুলাই বাংলাদেশ ব্যাংক ২০১৯-২০ অর্থবছরের যে মুদ্রানীতি ঘোষণা করে, তাতে বেসরকারি খাতে ঋণ প্রবাহের প্রবৃদ্ধির লক্ষ্য আগের চেয়ে কমিয়ে ১৪ দশমিক ৮০ শতাংশ ধরা হয়। কিন্তু সেই লক্ষ্যমাত্রা কোন মাসেই অর্জন হয়নি। অন্যদিকে মুদ্রানীতিতে সরকারি খাতে ঋণের প্রবৃদ্ধির লক্ষ্য ধরা হয় ২৪ দশমিক ৩ শতাংশ। জানুয়ারিতে অবশ্য তা বাড়িয়ে ৫৬ শতাংশ করা হয়। কিন্তু এপ্রিল শেষে সেটাও ছাড়িয়ে ৭৪ দশমিক ৫৫ শতাংশে উঠেছে।

কেন্দ্রীয় ব্যাংকের তথ্যে দেখা যায়, ২০১৮ সালের ডিসেম্বরের চেয়ে ২০১৯ সালের ডিসেম্বরে বেসরকারি খাতে ঋণের প্রবৃদ্ধি হয়েছে ৯ দশমিক ৮৩ শতাংশ। আগের মাস নভেম্বরে প্রবৃদ্ধি ছিল ৯ দশমিক ৮৭ শতাংশ। অক্টোবরে ছিল ১০ দশমিক ০৪ শতাংশ। সেপ্টেম্বরে ১০ দশমিক ৬৬ শতাংশ। আগস্টে ছিল ১০ দশমিক ৬৮ শতাংশ। তার আগের মাস জুলাইয়ে ছিল ১১ দশমিক ২৬ শতাংশ। তার আগে জুনে ঋণ প্রবৃদ্ধি ছিল ১১ দশমিক ২৯ শতাংশ, মে মাসে ১২ দশমিক ১৬ শতাংশ। এপ্রিলে ছিল ১২ দশমিক শূন্য ৭ শতাংশ, মার্চে ১২ দশমিক ৪২ শতাংশ। জানুয়ারি ও ফেব্রুয়ারিতে ছিল যথাক্রমে ১৩ দশমিক ২০ শতাংশ ও ১২ দশমিক ৫৪ শতাংশ।

লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে অনেক কম রাজস্ব আদায় এবং সঞ্চয়পত্র বিক্রি কমে যাওয়ায় প্রয়োজনীয় খরচ মেটাতে বাধ্য হয়েই সরকারকে ব্যাংক থেকে প্রচুর ঋণ নিতে হচ্ছে বলে মত বিশ্লেষকদের।

বাংলাদেশ ব্যাংকের তথ্য ঘেটে দেখা যায়, ২০১০ সালের সেপ্টেম্বর মাসে বেসরকারি খাতে ঋণ প্রবৃদ্ধি হয়েছিল ৬ দশমিক শূন্য ৯ শতাংশ। এরপর থেকে গত বছরের অক্টোবর পর্যন্ত টানা ৯ বছর প্রতি মাসে ঋণ প্রবৃদ্ধি ছিল ১০ শতাংশের উপরে। গত নভেম্বরে এই প্রবৃদ্ধি এক অংকে (সিঙ্গেল ডিজিট) ৯ দশমিক ৮৭ শতাংশে নেমে আসে। ডিসেম্বরে তা আরও কমে ৯ দশমিক ৮৩ শতাংশ হয়।

অর্থসূচক/জেডএ/কেএসআর

এই বিভাগের আরো সংবাদ