এখনো চলছে কালো গ্লাসের গাড়ি!
শুক্রবার, ১৮ই সেপ্টেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » অপরাধ ও আইন

এখনো চলছে কালো গ্লাসের গাড়ি!

কালো গ্লাসের গাড়ি

কালো গ্লাসের একটি গাড়ি আটক করেছে পুলিশ: ছবিটি শনিবার রাজধানীর মিন্টো রোড থেকে তোলা

দেশে অপহরণ, খুন ও গুমের ঘটনা অহরহ ঘটছে। সর্বশেষ নারায়ণগঞ্জের ঘটনায় সারা দেশে আলোচনার ঝড় উঠেছে।

তারই ধারাবাহিকতায় আইন-শৃংখলা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে সকল গাড়ি থেকে কালো কাঁচ প্রত্যাহারের নির্দেশ দিয়ে সময় বেঁধে দেওয়া হয়েছিল।

তবে সরকারের এ আইন অনেকেই মানছেন না বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। রাজধানীতে এখনও কালো কাঁচের গাড়ি দেখা যাচ্ছে।

বাজার ঘুরে দেখা গেছে, গাড়ির কালো কাঁচ সরাতে খুব বেশি ভিড় নেই দোকানগুলোতে। দোকানিরা বলছেন, আজকে গাড়ির কালো কাঁচ সরাতে খুব বেশি গাড়ি আসেনি। তিন-চারটা গাড়ি থেকে কালো কাঁচ সারানো হয়েছে।

বিজয় নগরের মাহতাব সেন্টারের এক ব্যবসায়ী বলেন, আইন- শৃঙ্খলা পরিস্থিতির উন্নতির জন্য এটা একটা ভালো উদ্যোগ। এতে কিছুটা হলেও পরিস্থিতির উন্নতি হবে।

তবে এ বিষয়ে তিনি বলেন, অনেক গাড়ির মালিকরা এ আইন মেনে চলছেন না। বিশেষত সরকারি গাড়িতে এ বিষয়টা বেশি দেখা গেছে।

গাড়ির মালিকদের দাবি, এভাবে গাড়ির কালো কাঁচ তুলে ফেলে আইন-শৃংখলা পরিস্থিতির কতটা উন্নতি করা যাবে তা নিয়ে সংশয় রয়ে যায়।
একজন গাড়ির মালিকের সাথে কথা হয় বিজয়নগরের মাহতাব সেন্টারের সামনে। তিনি একটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা। তিনি বলেন, এটি একটি আইওয়াশ। এভাবে সন্ত্রাসীদের ধরা যাবে না।

তবে আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীকে আরও কঠোর ও সচেতন হতে হবে। তাহলে দেশের বর্তমান পরিস্থিতির উন্নতি হতে পারে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন তিনি।

উল্লেখ্য, মাইক্রোবাসসহ সবধরনের যানবাহন থেকে কালো গ্লাস খুলে ফেলার জন্য নির্দেশ দিয়েছিল স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। এজন্য সময় বেঁধে দেওয়া হয়েছিল ১০ মে পর্যন্ত।

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছিল, যেসব গাড়ির সামনের উইন্ডশিল্ড, দুই পাশের জানালা ও পেছনের কাঁচ ফ্যাক্টরিতে নির্মিত অবস্থায় সংযোজিত (বিল্ট-ইন), সেগুলোর ক্ষেত্রে এই আদেশ প্রযোজ্য হবে না। তবে বিল্ট-ইন ছাড়া যেসব গাড়ির জানালায় আলাদাভাবে লাগানো রঙিন, কালো, মার্কারি, টিনটেড, অস্বচ্ছ ফিল্ম, পলিথিন প্লাস্টিক জাতীয় কৃত্রিম আবরণ তা আগামি ১০ মের মধ্যে অপসারণ করতে হবে। এই নির্দেশ অমান্য করা হলে আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী যথাযথ আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।’

এই বিভাগের আরো সংবাদ