ভারতের প্রতিনিধিরা ঢাকায়, কাল বৈঠক
শুক্রবার, ১৮ই সেপ্টেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » টেক
ব্যান্ডউইথ আমদানি

ভারতের প্রতিনিধিরা ঢাকায়, কাল বৈঠক

Submarine Cable company, bsccl

সাব মেরিন ক্যাবল কোম্পানির ল্যান্ডিং স্টেশন

বাংলাদেশ থেকে ব্যান্ডউইথ আমদানির চূড়ান্ত আলোচনার জন্য ঢাকা এসেছে ভারতীয় প্রতিনিধি দল। আজ শনিবার প্রতিনিধি দলের দুই সদস্য ঢাকা পৌঁছেছেন। রোববার আরও একজন সদস্য এ দলে যোগ দেবেন।প্রতিনিধি দলটি সোমবার পর্যন্ত ঢাকায় অবস্থান করবে। টেলিযোগাযোগ মন্ত্রণালয়সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

সূত্র জানিয়েছে, প্রতিনিধি দলটি রোববার সকালে সাবমেরিন ক্যাবল কোম্পানির সঙ্গে বৈঠক করবে। বিকালে বৈঠক করবে টেলিকম সচিবের সঙ্গে। এসব বৈঠকে ব্যান্ডউইথ আমদানি-রপ্তানির বিষয়ে কারিগরি ও আর্থিক প্রস্তাব নিয়ে আলোচনা হবে।

উল্লেখ, প্রতিবেশি ভারত তার পার্বত ঘেরা সাত রাজ্যে বাংলাদেশ থেকে ব্যান্ডউইথ আমদানি করতে চাচ্ছে। রাজ্যগুলো হচ্ছে-আসাম, ত্রিপুরা, মেঘালয়, মিজোরাম, নাগাল্যান্ড, মনিপুর। বাংলাদেশ সাবমেরিন ক্যাবল কোম্পানি লিমিটেডের (বিএসসিসিএল) কাছ থেকে এ ব্যান্ডউইথ কিনবে তারা।

ব্যান্ডউইথ আমদানির বিষয়ে চূড়ান্ত আলোচনা করতে গত সপ্তাহে ভারতীয় প্রতিনিধি দলটির ঢাকা সফর করার কথা ছিল। কিন্তু ভিসা জটিলতার কারণে শেষ পর্যন্ত তারা আসতে পারেনি।

আলোচনা সফল হলে বাংলাদেশ সাবমেরিন কোম্পানির ভারতে ৪০ গিগাবাইট ব্যান্ডউইথ কিনবে। গত বছরের মাঝামাঝি সময়ে দেশটি এআগ্রহ প্রকাশ করে। এর পর দুই দফায় ভারতের দুটি প্রতিনিধি দল বাংলাদেশ সফর করে। তারা টেলিযোগাযোগ মন্ত্রণালয়, স্বরাষ্ট্র ও পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এবং বাংলাদেশ সাবমেরিন ক্যাবল কোম্পানির সঙ্গে বৈঠক করে। তবে কারিগরি অনেক বিষয় অস্পষ্ট থাকা এবং সামনে বাংলাদেশের জাতীয় সংসদ নির্বাচন থাকায় প্রক্রিয়াটি বেশি দূর এগোয়নি। নির্বাচনের আগে ভারতে ব্যান্ডউইথ রপ্তানির মতো স্পর্শকাতর সিদ্ধান্ত নেওয়ার ঝুঁকি নেয়নি সরকার। নির্বাচনে জিতে ফের সরকার গঠনের পর গত ফেব্রুয়ারি মাসে মন্ত্রীপরিষদের সভায় ব্যান্ডউইথ রপ্তানির নীতিগত সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। আর তারই পরিপ্রেক্ষিতে ব্যান্ডউইথের মূল্য ও কারিগরি বিষয় নিয়ে চূড়ান্ত আলোচনা করতে ঢাকা এসেছে ভারতের প্রতিনিধি দলটি।

জানা গেছে, ব্যান্ডউইথ রপ্তানির জন্য দুটি রুট চূড়ান্ত করা হয়েছে।কক্সবাজারে সাবমেরিন ক্যাবল কোম্পানির ল্যান্ডিং স্টেশন। সমুদ্রের নিচ দিয়েআসা অপটিক্যাল ফাইবারের লাইন এ পয়েন্ট দিয়ে উপরে উঠেছে। এ ল্যান্ডিং স্টেশন থেকে ডেডিকেটেড ক্যাবলের মাধ্যমে লাইন নিয়ে আসা হবে কুমিল্লা পর্যন্ত। সেখান থেকে একটি লাইন আখাউড়া হয়ে ভারত যাবে; অন্য লাইনটি যাবে কুমিল্লা থেকে তামাবিল হয়ে।

 

এই বিভাগের আরো সংবাদ