এখনো 'গভীর অচেতন' মোহাম্মদ নাসিম
সোমবার, ১৩ জুলাই, ২০২০
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » App Home Page

এখনো ‘গভীর অচেতন’ মোহাম্মদ নাসিম

করোনার সংক্রমণের পর ব্রেইন স্ট্রোকে আক্রান্ত হয়ে ভেন্টিলেশনে থাকা সাবেক স্বাস্থ্যমন্ত্রী ও বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের সভাপতিমন্ডলীর সদস্য মোহাম্মদ নাসিম গভীর কোমা বা গভীর অচেতন অবস্থায় আছেন। গত ২৪ ঘণ্টায় তার শরীরের কোনো উন্নতি হয়নি। এখনো তিনি সঙ্কটাপন্ন অবস্থায় আছেন।

আজ রোববার (৭ জুন) নাসিমের চিকিৎসা গঠিত মেডিক্যাল বোর্ডের প্রধান ও বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বিএসএমএমইউ) অধ্যাপক ডাক্তার কনক কান্তি বড়ুয়া গণমাধ্যমকে এ তথ্য জানিয়েছেন।


প্রিয় পাঠক,করোনাভাইরাস সংক্রান্ত দেশ-বিদেশের নির্বাচিত নিউজ ও টিপস এখন থেকে পাওয়া যাবে

ফেসবুক গ্রুপ Corona: News & Tips এ। এতে যোগ দিয়ে সহজেই থাকতে পারেন আপডেট।


শনিবার সকালে নাসিম ব্রেইন স্ট্রোকে আক্রান্ত হন। ঢাকা মেডিক্যাল কলেজের নিউরোসার্জারি বিভাগের প্রধান অধ্যাপক ডাক্তার রাজিউল হকের নেতৃত্বে তার মস্তিষ্কে অস্ত্রোপচার করা হয়। এই অস্ত্রোপচার সফল বলা হলেও নাসির অবস্থার উন্নতি না হয়ে অবনতি হয়। তাকে গতকাল ভেন্টিলেশন তথা লাইফ সাপোর্টে রাখা হয়।

অস্ত্রোপচারের পর চিকিৎসকদের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছিল নাসিমকে ৪৮ ঘণ্টা বিশেষ পর্যবেক্ষণে রাখা হবে। তারপর নতুন সিদ্ধান্ত নেবেন তারা। কিন্তু কালই পর্যবেক্ষণের সময় বাড়িয়ে ৭২ ঘণ্টা করা হয়।

গতকাল শনিবার বিকালে মেডিক্যাল বোর্ডের প্রধান অধ্যাপক ডাক্তার কনক কান্তি বড়ুয়া গণমাধ্যমকে জানিয়েছিলেন, মোহাম্মদ নাসিমের অবস্থা বেশ সংঙ্কটাপন্ন। তাই ৭২ ঘণ্টা না গেলে কিছুই বলা যাবে না।

আজ দুপুরে তিনি হাসপাতাল পরিদর্শন ও চিকিৎসকদের সঙ্গে বৈঠক শেষে আবারও নাসিমের সঙ্কটাপন্ন অবস্থার কথা জানিয়েছেন।

তিনি বলেছেন, গত ৪৮ ঘণ্টায় তার (নাসিম) অবস্থার কোনো উন্নতি হয়নি। তিনি গভীর অচেতন অবস্থা বা কোমায় আছেন।

তিনি আরও বলেন, সিটি স্ক্যান, এমআরআইসহ কিছু পরীক্ষা করা গেলে তার প্রকৃত অবস্থা বুঝা যেত। কিন্তু ভেন্টিলেশন সরিয়ে এমআরআই করার বিষয়টিতে বেশ ঝুঁকি আছে। তাই আজ এটি করা হয়নি।

উল্লেখ,  গত ১ জুন সাবেক স্বাস্থ্যমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য মোহাম্মদ নাসিম করোনার উপসর্গ নিয়ে রাজধানীর শ্যামলীর বাংলাদেশ স্পেশালাইজড হসপিটালে ভর্তি হন। সেদিন রাতেই তার করোনা পরীক্ষার রিপোর্ট পজেটিভ আসে।

করোনায় অবস্থার অবনতি হলে তাকে হাসপাতালটির আইসিইউতে স্থানান্তর করা হয়। বৃহস্পতিবার নাগাদ অবস্থার উন্নতি হওয়ায় গতকাল শুক্রবার তাকে কেবিনে নিয়ে যাওয়ার কথা ছিল। কিন্তু ভোরে তিনি ব্রেইন স্ট্রেকে আক্রান্ত হন।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হস্তক্ষেপে মোহাম্মদ নাসিমকে আরও ভালো চিকিৎসা দেওয়ার জন্যে সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে (সিএমএইচ) নিয়ে যাওয়ার ব্যবস্থা করা হয়েছিল। শুক্রবার সকালে সিএমএইচের একটি অ্যাম্বুলেন্সও এসেছিল তাকে নিয়ে যেতে। কিন্তু হঠাৎ পরিস্থিতির অবনতি হওয়ায় সেটি আর সম্ভব হয়নি।

 

এই বিভাগের আরো সংবাদ