‘পুঁজিবাজারে কালো টাকা বিনিয়োগের সুযোগ দিলে পরিস্থিতি খারাপ হবে’

Share-Bazar
Share-Bazar
ছবি: ফাইল ছবি

পুঁজিবাজারে কালো টাকা বিনিয়োগ করার সুযোগ দিলে বাজারের পরিস্থিতি ২০১০ সালের চেয়ে বেশি খারাপ হবে বলে মনে করেন বিশেষজ্ঞরা। শনিবার বিকেলে চিটাগং ক্যাপিটাল লিমিটেড আয়োজিত ‘শেয়ার বাজারের বর্তমান ও ভবিষৎ: নিরাপদ বিনিয়োগে করণীয়’ শীর্ষক এক আলোচনার সভায় এমন আশঙ্কার কথা জানান তারা।

অনুষ্ঠানে বক্তারা বলেন, পুঁজিবাজারে কালো টাকা বিনিয়োগ করার মাধ্যমে যাদেরকে সুযোগ করে দেওয়া হবে তারা আবারও বাজারকে ধ্বসের দিকে নিয়ে যাবে। এমনকি ব্যাংক বিনিয়োগ করলে তারাও দ্রুত মুনাফা করতে গিয়ে বাজারের মধ্যে অস্বাভাবিক পরিস্থিতি তৈরি করে। এ বাজারের বিনিয়োগ হবে মানুষের উদ্বৃত্ত টাকা। তবে বিনিয়োগকারীকে তা পেশা হিসেবে না নেওয়ার আহ্বান জানান তারা।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের ব্যবস্থাপনা পরিচালক সৈয়দ সাজিদ হুসাইন বলেন, পুঁজিবাজারে বিনিয়োগ করার আগে পুজিঁবাজার সম্পর্কে ভালোভাবে জানতে হবে। যে প্রতিষ্ঠানের শেয়ার কিনতে আগ্রহী সে প্রতিষ্ঠানের অতীত ইতিহাস, ভবিষৎ পরিকল্পনা, ডিরেক্টর কারা এবং কি পরিমাণ লভ্যাংশ দেয় প্রভৃতি বিষয় সম্পর্কে বিস্তারিত ধারণা নিতে হবে। সেই সঙ্গে ঝুঁকি কমানোর জন্য একই ধরনের কোম্পানির শেয়ার না কিনে বিভিন্ন ধরনের শেয়ার কেনা উচিত।

এইমস অব বাংলাদেশ লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ইওয়ার সাঈদ বলেন, পুঁজিবাজারে অন্য কারও পরামর্শে বিনিয়োগ করলে ক্ষতি হওয়ার সম্ভাবনা বেশি থাকে । সিদ্ধান্ত অন্যের হাতে চলে গেলে আপনার বিনিয়োগ নিরাপদে থাকবে না। বিনিয়োগকারীদের লোভ সংবরণ করে শুধু লাভ না দেখে ঝুঁকির দিকটা আগে দেখতে হবে।

সিসিআইয়ের পরিচালক আলমাস শিমুলের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অন্যদের মাঝে আরও উপস্থিত ছিলেন জিএইচপি গ্রুপের নির্বাহী পরিচালক আবু বকর সিদ্দিক, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইন্টারন্যাশনাল বিজনেস বিভাগের সহকারি অধ্যাপক সুবর্ণ বড়ুয়া।