রাশিয়ার নদীতে তেল, জরুরি অবস্থা ঘোষণা
বুধবার, ১২ই আগস্ট, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » App Home Page

নদীতে ভাসছে তেল, জরুরি অবস্থা ঘোষণা পুতিনের

ট্যাংকার লিক করে ডিজেল মিশেছে রাশিয়ার সাইবেরিয়ার নদীতে। এর জেরে ইতিমধ্যে দেশে জরুরি অবস্থা জারি করেছেন দেশটির প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন। নরিলস্ক নিকেল নামে এক খনন সংস্থার উপর তিনি ক্ষোভে ফেটে পড়েছেন।

রাশিয়ার সাইবেরিয়ার নরিলস্ক শহরের কাছে তেলের ট্যাংকার লিক হয়ে এই দুর্ঘটনাটি ঘটেছে। সেখানকার নদীর পানিতে মিশেছে ট্যাংকার থেকে লিক করা ২০ হাজার টন ডিজেল। এর ফলে রক্তবর্ণ হয়ে গেছে নদীর পানি। দূষণের পরিমাণ এতটাই ভয়াবহ যে স্যাটেলাইট ছবিতেও তা ধরা পড়েছে। লিক হওয়া ডিজেল নদীপথ ধরে পৌঁছে যেতে পারে উত্তর মেরু বা সুমেরু সাগর পর্যন্ত। আর সেটা হলে ভয়াবহ বিপর্যয়ের মুখে পড়বে পৃথিবীর উত্তর গোলার্ধ।

গত ২৯ মে তেল লিক হওয়ার ঘটনাটি ঘটে বলে স্থানীয় সংবাদমাধ্যমের খবরে জানা যায়। একটি তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্রে রাখা তেলের ট্যাংকার লিক করে হঠাৎই ডিজেল বের হতে শুরু করে। ঘটনার দুই দিন পর বিষয়টি আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমের নজরে আসে।

করোনার প্রকোপে দিশেহারা রাশিয়ায় নতুন উপদ্রব এই তেল-বিপর্যয়। এই খবর শুনে ক্ষোভ চেপে রাখতে পারেননি রুশ প্রেসিডেন্ট পুতিন। এই ঘটনায় দায়ী প্রতিষ্ঠান তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্রের মালিকানাধীন সংস্থা নরিলস্ক নিকেলের উপর ক্ষোভ প্রকাশ করেন প্রেসিডেন্ট। বিপর্যয়ের খবর জানাতে কেন দুই দিন লেগে গেল সেই প্রশ্নও তোলেন। সমালোচনা করেন স্থানীয় প্রশাসনের।

ইতিমধ্যেই নরিলস্ক নিকেলের বিরুদ্ধে রাশিয়ার তদন্তকারী সংস্থা পরিবেশ দূষণের অভিযোগে মামলা দায়ের করেছে। ওই তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্রের এক কর্মীকে আটক করেছে তারা। তবে যে হারে ডিজেল নদীতে ছড়িয়ে পড়েছে, তাতে পানি থেকে সেই ডিজেল তোলা প্রায় অসম্ভব বলেই মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা।

প্রাকৃতিক সম্পদে পূর্ণ উত্তর গোলার্ধ ঘেষা রাশিয়ার শহর নরিলস্ক। এটি পৃথিবীর সবচেয়ে দূষিত শহরের মধ্যেও অন্যতম। তাই ডিজেল লিকের এই ঘটনায় পরিবেশ ও জীববৈচিত্রের ব্যাপক ক্ষতির আশঙ্কা করছেন পরিবেশবিদরা। সূত্র: সিএনএন

অর্থসূচক/এসএস/এএইচআর

এই বিভাগের আরো সংবাদ