করোনা চিকিৎসায় আশা জাগালো রাশিয়ার 'গেম চেঞ্জার' অ্যাভিফাভির
শুক্রবার, ৩রা জুলাই, ২০২০ ইং
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » App Home Page

করোনা চিকিৎসায় আশা জাগালো রাশিয়ার ‘গেম চেঞ্জার’ অ্যাভিফাভির

করোনা ভাইরাসের বিরুদ্ধে একটি ওষুধ ব্যবহার করে আশাতীত ফল পাওয়া গেছে বলে দাবি করেছে রাশিয়া। চলতি মাসেই আক্রান্ত রোগীদের ক্ষেত্রে এই ওষুধ ব্যবহার শুরু করার পরিকল্পনা রয়েছে দেশটির। রাশিয়া এ ওষুধের নাম দিয়েছে ‘গেম চেঞ্জার’।

সোমবার (১ জুন) রাশিয়ার স্থানীয় সংবাদমাধ্যম দ্য মস্কো টাইমস এ তথ্য জানায়।

প্রাথমিকভাবে পরীক্ষামূলক ব্যবহারে দেখা গেছে যে, অ্যাভিফ্যাভির নামের ওই ওষুধটি ব্যবহারে রোগীদের ক্ষেত্রে আশাতীত সাফল্য এসেছে। এটি খুব কম সময়ের মধ্যে কোভিড-১৯ আক্রান্ত রোগীদের সুস্থ করে তুলতে সক্ষম হয়েছে।

রুশ সরকার জানিয়েছে, ক্লিনিক্যাল ট্রায়ালের চূড়ান্ত ধাপে বর্তমানে ৩৩০ জন রোগীর ওপর এটি প্রয়োগ করা হবে। আগামী ১১ জুন থেকে এই ওষুধ দিয়ে আক্রান্ত রোগীদের চিকিৎসা শুরু করবে রাশিয়া।

রাশিয়ার স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানিয়েছে যে, অস্থায়ীভাবে কোভিড-১৯ রোগীর চিকিৎসায় এই ওষুধ ব্যবহারের অনুমতি দেওয়া হয়েছে।

রাশিয়ান ডিরেক্ট ইনভেস্টমেন্ট ফান্ড (আরডিআইএফ) এবং চেমরার গ্রুপ যৌথভাবে এই ওষুধ উৎপাদন করেছে।

বলা হচ্ছে, ফ্লু রোগের ক্ষেত্রে ব্যবহৃত অ্যাভিগান ওষুধের পরবির্তত সংস্করণ এটি। ২০১৪ সালে ইনফ্লুয়েঞ্জার ক্ষেত্রে অ্যাভিগানের ব্যবহার শুরু করে জাপান। করোনায় আক্রান্তদের চিকিৎসার জন্য অ্যাভিগানের কিছু পরিবর্তনের মাধ্যমে অ্যাভিফ্যাভির তৈরি করেছে রাশিয়া।

‘গেম চেঞ্জার’ ওষুধের নাম করনের পিছনে ব্যাখ্যা দিয়ে রাশিয়া সরকারের এক কর্মকর্তা বলেন, মহামারির কবল থেকে এ ওষুধ মানুষকে স্বাভাবিক অর্থনৈতিক জীবনে ফিরে আসার গতি অর্জন করবে। এজন্যই এর নাম দেওয়া হয়েছে গেম চেঞ্জার।

রাশিয়ার আরডিআইএফ সার্বভৌম সম্পদ তহবিলের প্রধান এক সাক্ষাৎকারে বলেন, ‘গেম চেঞ্জার’ অর্থাৎ অ্যাভিফাভির নামে, প্রথম সম্ভাব্য কোনো ওষুধ করোনা ভাইরাস চিকিৎসায় রাশিয়ার স্বাস্থ্য মন্ত্রক কর্তৃক অনুমোদিত হয়েছে। শনিবার (৩০ মে) এটির ক্লিনিক্যাল ট্রায়ালের পরে অনুমোদিত ওষুধের সরকারি তালিকায় অ্যাভিফাভির নাম সংযুক্ত হয়। ক্লিনিক্যাল ট্রায়ালে ওষুধটির আশাব্যঞ্জক ফল পাওয়া গিয়েছে।

তিনি আরও বলেন, রাশিয়ার হাসপাতালগুলোতে ১১ জুন থেকে করোনা চিকিৎসায় এ ওষুধের ব্যবহার করা হবে। প্রতিমাসে আমরা সর্বোচ্চ ৬০ হাজার রোগীকে এ ওষুধ দিয়ে চিকিৎসা দিতে সক্ষম।

আরডিআইএফের প্রধান কিরিল দিমিত্রিভ বলেছেন, ক্লিনিক্যাল ট্রায়ালগুলোতে ৩৩০ জন রোগী অংশ নেয়। ওষুধটি বেশিরভাগ ক্ষেত্রে সফলভাবে চার দিনের মধ্যে ভাইরাসটির বিরুদ্ধে লড়াই করতে সক্ষম হয়েছিল।

রুশ বিজ্ঞানীদের দাবি, কোভিড-১৯ এর বিরুদ্ধে এখন পর্যন্ত বিশ্বের সবচেয়ে ভালো প্রতিষেধক অ্যাভিফ্যাভির। এর ফর্মুলা দ্রুত বিশ্বকে জানানো হবে। জুন মাসের মধ্যেই রাশিয়ার সব হাসপাতালে সরবরাহ করা হবে এটি।

এখন পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত ও মৃত্যুতে শীর্ষে রয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। এই তালিকায় রাশিয়ার অবস্থান ৩য়। দেশটিতে এখন পর্যন্ত আক্রান্তের সংখ্যা ৪ লাখ ২৩ হাজার ৭৪১। এর মধ্যে মারা গেছে ৫ হাজার ৩৭ জন।

অর্থসূচক/কেএসআর

এই বিভাগের আরো সংবাদ