পাকিস্তানে বিমানের ধ্বংসস্তূপ থেকে ৩ কোটি রুপী উদ্ধার!
বৃহস্পতিবার, ৯ জুলাই, ২০২০
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » App Home Page

পাকিস্তানে বিমানের ধ্বংসস্তূপ থেকে ৩ কোটি রুপী উদ্ধার!

পাকিস্তান ইন্টারন্যাশনাল এয়ারলাইন্সের বিধ্বস্ত বিমানের ধ্বংসস্তূপ থেকে প্রায় ৩ কোটি রুপী উদ্ধার করেছে তদন্ত এবং উদ্ধারকারীরা। করাচিতে মোট ৯৯ জন আরোহী নিয়ে দুর্ঘটনায় পড়ে বিমানটি। এতে ৯ শিশুসহ ৯৭ জনের মৃত্যু হয়।

লাহোর থেকে করাচি যাওয়ার পথে গত ২২ মে করাচি আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের কাছে বসতি এলাকায় ভেঙে পড়ে বিমান পিকে-৮৩০৩। এই দুর্ঘটনায় প্রাণে বেঁচে যান মাত্র ২ জন যাত্রী।

সরকারি সূত্রে জানা যায়, ভেঙে পড়া বিমান থেকে বিভিন্ন দেশের মুদ্রা উদ্ধার করা হয়েছে, পাকিস্তানি মুদ্রায় যার মূল্যমান প্রায় ৩ কোটি রুপী। মোট দুইটি ব্যাগে এই বিপুল অর্থ ছিল। এতে স্বাভাবিকভাবেই তদন্তকারী ও উদ্ধারকারীরা বিস্মিত। বিমানবন্দরের কঠোর নিরাপত্তা ব্যবস্থা এড়িয়ে কীভাবে ওই পরিমাণ অর্থ বিমানটিতে করে আনা হয়েছিল তা ভেবে বিস্মিত তারা। পুরো বিষয়টি খতিয়ে দেখতে তদন্তের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে বলে উদ্ধারকাজে সঙ্গে যুক্ত এক শীর্ষ কর্মকর্তা জানিয়েছেন।

তিনি আরো জানান, দুর্ঘটনাগ্রস্ত বিমানের ৪৭জন যাত্রীর লাশ শনাক্ত হয়েছে। এর মধ্যে ৪৩টি লাশ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। অবশিষ্ট যাত্রীদের লাশ এবং লাগেজ শনাক্ত করার প্রক্রিয়া চলছে। যত দ্রুত সম্ভব সেগুলো তাদের পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হবে।

গত ২২ মে’র এই বিমান দুর্ঘটনা পাকিস্তানের ইতিহাসে এখন পর্যন্ত সবচেয়ে বড় বিমান দুর্ঘটনা। এই দুর্ঘটনা অতীতের সমস্ত ভয়াবহতাকে হার মানিয়েছে। দুর্ঘটনার কারণ অনুসন্ধান করে দেখা হচ্ছে। উদ্ধার করা হয়েছে বিমানের ব্ল্যাক বক্স।

এর আগে ২০১৬ সালের ৭ ডিসেম্বর চিতরাল থেকে ইস্তাম্বুল যাওয়ার পথে পাকিস্তান ইন্টারন্যাশনাল এয়ারলাইন্সের একটি এটিআর-৪২ বিমান বিধ্বস্ত হয়েছিল। সেই দুর্ঘটনায় প্রাণ হারিয়েছিলেন ক্রুসহ বিমানের ৪৮ যাত্রী।

সূত্র: দ্য হিন্দু

অর্থসূচক/এসএস/কেএসআর

এই বিভাগের আরো সংবাদ