বেক্সিমকো ফার্মা থেকে রেমডেসিভির নেবে পাকিস্তান
বুধবার, ৮ই জুলাই, ২০২০ ইং
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » App Home Page

বেক্সিমকো ফার্মা থেকে রেমডেসিভির নেবে পাকিস্তান

নভেল করোনাভাইরাসের তীব্র প্রকোপের মুখে বাংলাদেশ থেকে রেমডেসিভির কিনবে পাকিস্তান। সে দেশের তৃতীয় বৃহত্তম ওষুধ উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠান সিয়ারলে কোম্পানি লিমিটেড (Searle Company Limited) রেমডেসিভির আমদানির জন্য বাংলাদেশের অন্যতম শীর্ষ ওষুধ প্রস্তুতকারক প্রতিষ্ঠান বেক্সিমকো ফার্মাসিউটিক্যালস লিমিটেডের সঙ্গে একটি চুক্তি সই করেছে। এই চুক্তির সুবাদে সিয়ারলে এককভাবে পাকিস্তানে বেক্সিমকোর উৎপাদিত রেমডেসিভির (ব্র্যান্ড নাম বেমসিভির) আমদানি ও বাজারজাত করতে পারবে।


অর্থসূচকে প্রকাশিত পুঁজিবাজার ও অর্থনীতির গুরুত্বপূর্ণ খবরগুলো পাওয়া যাচ্ছে আমাদের ফেসবুক

গ্রুপ Sharebazaar-News & Analysis এ। গ্রুপে যোগ দিয়ে সহজেই থাকতে পারেন আপডেট।


খবর আল জাজিরা ও নিউইয়র্ক টাইমসের

পাকিস্তানের সিয়ারলে স্টক এক্সচেঞ্জে তালিকাভুক্ত একটি কোম্পানি। কোম্পানিটি মূল্য সংবেদনশীল তথ্য হিসেবে বাংলাদেশের বেক্সিমকোর সাথে চুক্তির বিষয়টি জানিয়েছে।

উল্লেখ, রেমডেসিভির যুক্তরাষ্ট্রের ওষুধ কোম্পানি গিলিয়েড সায়েন্সেসের উদ্ভাবিত একটি ওষুধ। এটি মূলত ইবোলা ভাইরাসের চিকিৎসার জন্য উদ্ভাবন করা হয়েছিল। তবে ইবোলার চিকিৎসায় তেমন সাফল্য আসেনি এই ওষুধে। গত এপ্রিল মাসে কোম্পানিটির পক্ষ থেকে একটি সমীক্ষার বরাত দিয়ে দাবি করা হয়, করোনার চিকিৎসায় এই ওষুধে জাদুকরি সাফল্য পাওয়া গেছে। করোনায় আক্রান্ত মুমূর্ষু রোগীদের উপর রেমডেসিভির প্রয়োগ করে দেখা গেছে, এই ওষুধে মৃত্যুর হার কমেছে, অন্যদিকে রোগমুক্তিতে কম সময় লেগেছে।

করোনাভাইরাসে নাকাল যুক্তরাষ্ট্রের খাদ্য ও ওষুধ প্রশাসন জরুরি ব্যবস্থা হিসেবে রেমডেসিভির ব্যবহারের অনুমতি দেয়। দ্বিতীয় দেশ হিসেবে জাপান এই ওষুধ ব্যবহারের সিদ্ধান্ত নেয়। বাংলাদেশের ঔষধ প্রশাসন অধিদপ্তর গত ২২ মে দেশে
রেমডেসিভির ব্যবহারের অনুমতি দেয়। তার দুই সপ্তাহ আগে বেক্সিমকো ফার্মাসিউটিক্যালস, স্কয়ার ফার্মাসিউটিক্যালস, এসকেএফসহ ৬ কোম্পানিকে রেমিডেসিভির উৎপাদনের অনুমতি দেওয়া হয়।

মে মাসের প্রথম সপ্তাহে বেক্সিমকো ফার্মার পক্ষ থেকে জানানো হয়, তারা বিশ্বে প্রথম কোম্পানি হিসেবে জেনেরিক রেমডেসিভির উৎপাদন করেছে।

উল্লেখ, রেমডেসিভিরের প্যাটেন্ট গিলিয়েড সায়েন্সেসের হলেও বিশ্ব বাণিজ্য সংস্থার বিধি অনুসারে স্বল্পোন্নত দেশ হিসেবে বাংলাদেশের জন্য এটি প্রযোজ্য নয়। বাংলাদেশে এসকেএফ ফার্মাসিউটিক্যালস নামে আরও একটি কোম্পানি রেমভির নামে রেমডেসিভির উৎপাদন ও বাজারজাত শুরু করেছে। এছাড়া জুন মাসে আরও দুয়েকটি কোম্পানির উৎপাদিত রেমডেসিভির উৎপাদনে আসবে বলে জানা গেছে।

চলতি মাসের মাঝামাঝি সময়ে পাকিস্তানের আরেকটি ওষুধ প্রস্তুতকারী কোম্পানি ফিরোজ সন্স ফার্মাসিউটিক্যালস রেমডেসিভির উৎপাদনের লক্ষ্যে গিলিয়েড সায়েন্সেসের সাথে একটি চুক্তি সই করে। তবে ওষুধটি উৎপাদনে বেশ কিছুদিন সময় লাগবে বলে জানানো হয় কোম্পানিটির পক্ষ থেকে।

এদিকে বৃহস্পতিবার (২৮ মে) পাকিস্তানে করোনাভাইরাসে একদিনে সর্বোচ্চ সংখ্যক মানুষের মৃত্যু হয়। আর তার ঠিক পরের দিনই সিয়ারলে কোম্পানি বাংলাদেশ থেকে ওষুধ আমদানি করার ঘোষণা দেয়।

পাকিস্তানে এখন পর্যন্ত ৬৪ হাজার ২৮ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছে। আর এই ভাইরাসে মারা গেছে ১ হাজার ৩১৭ জন মানুষ

এই বিভাগের আরো সংবাদ