এপ্রিলে ভারতের বাণিজ্য ঘাটতি ৪৩ শতাংশ হ্রাস

Chittagong Sea Port
ছবি: চট্টগ্রাম বন্দর (ফাইল ছবি)
ভারতের রপ্তানি বেড়েছে- ফাইল ছবি।
ভারতের রপ্তানি বেড়েছে- ফাইল ছবি

বিশ্বের সবচেয়ে বৃহৎ গণতন্ত্রের দেশ ভারতে লোকসভা নির্বাচন চলছে। তারপরেও সোজা পথে হাটছে দেশটির  আমদানি-রপ্তানি বাণিজ্য। সম্প্রতি ভারতের বাণিজ্য মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, গেল এপ্রিল মাসে তাদের রপ্তানি বেড়েছে ৫ দশমিক ২৬ শতাংশ। অন্যদিকে আমদানি হ্রাস পেয়েছে ১৫ শতাংশ। ফলে বাণিজ্য ঘাটতি ৪৩ দশমিক ৪০ শতাংশ কমে এসেছে। খবর টাইমস অব ইন্ডিয়ার।

শুক্রবার এক তথ্য বিবরণীতে মন্ত্রণালয়টি জানিয়েছে, গত এপ্রিল মাসে ২ হাজার ৫৬৩ কোটি মার্কিন ডলারের পণ্য রপ্তানি করেছে ভারত। একই সাথে দেশটির আমদানি ১৫ শতাংশ হ্রাস পেয়েছে । অথচ চলতি বছরের প্রথম মাসেও ৩ হাজার ৫৭২ কোটি মার্কিন ডলারের পণ্য আমদানি করেছিল প্রতিবেশি দেশটি।

বিভাগটির সরবরাহকৃত তথ্য অনুযায়ী, এই মাসে প্রকৌশল খাত, সমুদ্রখাত ও চামড়া শিল্পে উল্লেখযোগ্যহারে উৎপাদন বেড়ে যাওয়ায় তাদের রপ্তানি এতো বেড়েছে। যা গত পাঁচ মাসের মধ্যে সর্বোচ্চ।

ভারত সরকারের এই বিভাগটি আরও জানায়, গত বছরের এই সময়ে দেশটির বাণিজ্য ঘাটতি ছিল ১ হাজার ৭৬৭ কোটি ডলার। বর্তমানে তা কমেছে দাড়িয়েছে ১ হাজার কোটি মার্কিন ডলারে।

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, এ অবস্থা চলতে থাকলে ভারত সরকার চলতি অর্থবছরে জিডিপির যে লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করেছেন তা ছাড়িয়ে। পাশাপাশি আমদানি ও রপ্তানি বাণিজ্যর মধ্যে একটি ভারসাম্য এনে বাণিজ্য ঘাটতি একেবারে শুন্যের কোটায় নামিয়ে আনা যাবে।

প্রসঙ্গত, গত মাসে ভারতের স্বর্ণ আমদানি ৭৪.১৩ শতাংশ কমে দাঁড়ায় ১৭৫ কোটি ডলারে। গত বছরের একই সময়ে স্বর্ণ আমদানির পরিমাণ ছিল ৬৭৮ কোটি ডলার ।

এস রহমান/