জুমাতুল বিদায় ক্ষমা ও করোনা থেকে মুক্তির প্রার্থনা

ছবি: মহুবার রহমান

জাতীয় মসজিদ বায়তুল মোকাররমসহ সারাদেশের মসজিদে পবিত্র জুমাতুল বিদা আদায় করেছেন ধর্মপ্রাণ মুসল্লিরা। নামাজ শেষে দেশের শান্তি ও করোনা থেকে মুক্তি কামনায় মোনাজাত করা হয়েছে। এছাড়া মহান আল্লাহর দরবারে ক্ষমা ও রহমত কামনা করেন মুসল্লিরা। একইসঙ্গে খুতবায় সামর্থ্যবান ব্যক্তিদেরকে অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়াতে ও জাকাত আদায় করতে আহ্বান করা হয়।

ছবি: মহুবার রহমান

আজ (২২ মে) দুপুর ১২টার পর থেকেই রাজধানীর বিভিন্ন এলাকার মসজিদগুলোতে আসতে শুরু করেন মুসল্লিরা। মসজিদে জায়গা না থাকায় কোথাও কোথাও রাস্তায় নামাজ পড়তে দেখা গেছে। তবে বেশিরভাগ মসজিদেই দূরত্ব বজায় রেখে দাঁড়িয়েছেন মুসল্লিরা। বায়তুল মোকাররম জাতীয় মসজিদসহ সব মসজিদেই ঈদের নামাজের আগেই ফিতরার টাকা পরিশোধের আহ্বান করা হয়।

মুসলমানদের কাছে সপ্তাহের অন্য দিনের চেয়ে শুক্রবারের মর্যাদা অধিক। রহমত, মাগফিরাত ও নাজাতের সওগাত নিয়ে আসা রমজান মাসের শুক্রবারগুলোর মর্যাদা আরো অধিকতর। এ দিন মসজিদে মসজিদে জুমার খুতবায় রমজান মাসের ফজিলত ও ইবাদতের গুরুত্ব ব্যাখ্যাসহ বিশেষ দোয়া করা হয়। একই সঙ্গে করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ থেকে দেশের মানুষকে রক্ষা এবং মুসলিম উম্মাহর ঐক্য ও শান্তি কামনা করে বিশেষ মোনাজাত করা হয়।

রাজধানীর বিভিন্ন মসজিদে মাস্ক পরে এবং দূরত্ব বজায় রেখে মুসলিমদের নামাজ আদায় করতে দেখা গেছে। রমজান মাসের শেষ জুমার নামাজ ‘জুমাতুল বিদা’ হিসেবে পরিচিত। জুমাতুল বিদায় অংশ নিতে অন্য দিনের চেয়ে মসজিদে বেশি ভিড় ছিল মুসল্লিদের। জাতীয় মসজিদে নিরাপত্তার জন্য ছিল অতিরিক্ত পুলিশ।

অর্থসূচক/এএইচআর