ভৈরব পৌরসভার ২৮ হাজার পরিবারের মাঝে খাদ্য বিতরণ শুরু
মঙ্গলবার, ২রা জুন, ২০২০ ইং
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » ঢাকা

ভৈরব পৌরসভার ২৮ হাজার পরিবারের মাঝে খাদ্য বিতরণ শুরু

কিশোরগঞ্জের ভৈরবে সরকারী বরাদ্ধ ও পৌরসভার নিজস্ব অর্থে পৌরসভার ২৮ হাজার ৪শ দরিদ্র পরিবারের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণের উদ্বোধন করেছেন পৌরসভার মেয়র, বীরমুক্তিযোদ্ধা এডভোকেট ফখরুল আলম আক্কাছ।

তিনি আজ শুক্রবার সকালে স্থানীয় সরকারী কেবি পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে ওই কর্মসূচীর উদ্বোধন করেন। উদ্বোধনকালে পৌরসভার ৬ ও ৭ নং ওয়ার্ডের দুই হাজার ৪শ করে পরিবারের মাঝে ১০ কেজি চাল, ৩ কেজি আলু ও ১ কেজি করে ডাল বিতরণ করা হয়।

এ সময় পৌরসভার সচিব মো: দুলাল উদ্দিন, ২নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর দ্বীন ইসলাম মিয়া, ৬নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মো: মোশাররফ হোসেন মিন্টু মিয়া, ৭নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মোহাম্মদ আলী সোহাগ প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

সচিব দুলাল উদ্দিন জানান, প্রথম দফায় পৌর এলাকার ১২টি ওয়ার্ডের প্রত্যেকটিতে ২৫০টি করে তিন হাজার পরিবারের মাঝে অনুরূপ চাল, ডাল, আলু বিতরণ করা হয়। দ্বিতীয় দফায় বর্তমানে ১২টি ওয়ার্ডের প্রত্যেকটিতে দুই হাজার ৪শ করে মোট ২৮ হাজার ৪শ পরিবারের মাঝে বিতরণ করা হচ্ছে। তৃতীয় দফার ত্রাণ বিতরণের তালিকাভূক্তির কার্যক্রম চলছে বলেও তিনি জানান।

উদ্বোধনী বক্তব্যে মেয়র ফখরুল আলম আক্কাছ বলেন, “যতোদিন পরিস্থিতি স্বাভাবিক না হবে। মানুষের কর্মচাঞ্চল্যতা ফিরে না আসবে, ততোদিন সরকারীভাবে এই ত্রাণ সহায়তা অব্যাহত থাকবে। আর দফায় দফায় সুবিধাভোগীর সংখ্যাও বাড়বে। এর অর্থ হলো, সরকার জনগণকে না খেয়ে মরতে দেবেন না।

তবে সরকারী সকল প্রচেষ্টাকে ব্যর্থ করে আপনারা মরে যেতে পারেন মহামারি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে। তাই আপনাদের কাছে অনুরোধ, একদম জরুরি প্রয়োজন ছাড়া ঘার থেকে বের হবেন না। বের হলেও নিজের নিরাপত্তা বিধান করে বের হবেন। বাহির থেকে ঘরে ঢুকে সাবান দিয়ে হাত-মুখ ধুয়ে নিবেন। নিজে বাঁচুন, পরিবারকে রক্ষা করুণ। চারপাশের মানুষকে বেঁচে থাকায় সহায়তা করুণ।

এ সময় তিনি আরও বলেন, করোনা মহামারি প্রকৃতির তৈরি। তাই এ থেকে রক্ষায় যিনি সব কিছু সৃষ্টির মালিক। সেই মহান রাব্বুল আলামীনের দরবারে ফরিয়াদ করুণ। তাঁর কাছে কায়োমন বাক্যে পরিত্রাণের জন্য আবেদন করুণ। তিনি ছাড়া এই প্রাণঘাতি মহামারি থেকে আমাদের রক্ষার আর কোনো উপায় নাই।

এই বিভাগের আরো সংবাদ