ভিডিও কলে আসামিকে মৃত্যুদণ্ড
শুক্রবার, ২৯শে মে, ২০২০ ইং
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » App Home Page

ভিডিও কলে আসামিকে মৃত্যুদণ্ড

মহামারি করোনায় বিপর্যস্ত বিশ্ব। সংক্রামক এই ভাইরাস নিয়ন্ত্রণে আক্রান্ত দেশগুলোতে চলছে লকডাউন। এতে অন্যান্য কর্মকাণ্ডের মত আদালতের কার্যক্রমও বন্ধ। এই পরিস্থিতিতে জুম কলেই এক অপরাধীকে রায় প্রদান করে সিঙ্গাপুরের এক আদালত। সিঙ্গাপুরে এই প্রথম কাউকে এভাবে মৃত্যুদণ্ড দেওয়া হল।

মৃত্যুদণ্ডের সাজাপ্রাপ্ত এই ব্যক্তির নাম পুনিথান গেনাসান (৩৭)। এই ব্যক্তি মালয়েশিয়ার বাসিন্দা। মাদক পাচারে যুক্ত থাকার জন্য তাকে এই সাজা দেয়া হয়। ২০১১ সালে হেরোইন পাচার করতে গিয়ে ধরা পড়ে সে। লকডাউনের মধ্যে ভিডিও কনফারেন্সিং-এর মাধ্যমে তাকে মৃত্যুদণ্ড দেয় সিঙ্গাপুরের সুপ্রিম কোর্ট। সিঙ্গাপুরে লকডাউনের প্রেক্ষাপটে গত এপ্রিল থেকে ভিডিও কনফারেন্স বা জুম কলের মাধ্যমে আদালতের কাজ চালু করা হয়েছে। এই প্রক্রিয়ায় আদালত জুন পর্যন্ত চলবে।

দেশটি বেআইনি মাদকের ক্ষেত্রে জিরো টলারেন্স নীতি গ্রহণ করেছে। এ পর্য়ন্ত দেশটিতে এ সংক্রান্ত মামলায় একশজনকে ফাঁসি দেয়া হয়েছে। এদের মধ্যে অন্তত ১২ জন বিদেশি নাগরিক।

হিউম্যান রাইটস ওয়াচের এশিয়া অঞ্চলের সহকারী পরিচালক ফিল রবার্টসন বলেন, ‘সিঙ্গাপুরে মৃত্যুদণ্ডের সাজা নিষ্ঠুর এবং অমানবিক। আর ভিডিও জুম কলের মাধ্যমে মৃত্যুদণ্ডের রায় ঘোষণা বিষয়টিকে আরও বেশি অমানবিক করে তুলেছে।’

অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনালের কর্মকর্তা চিয়ারা স্যানজিওর্জিও বলেন, মৃত্যুদণ্ড যেভাবেই দেয়া হোক না কেন, তা নিষ্ঠুর ও অমানবিক। এই মৃত্যুদণ্ড এটাই প্রমাণ করে যে, সিঙ্গাপুর মাদক পাচারের অপরাধে মৃত্যুদণ্ড দেয়ার মাধ্যমে আন্তর্জাতিক আইনকে বৃদ্ধাঙ্গুলি দেখাচ্ছে।

এশিয়ার দেশগুলির মধ্যে করোনা ভাইরাসে দাপটের বিচারে প্রথম সারিতে রয়েছে সিঙ্গাপুর। রয়টার্স

অর্থসূচক/এসএস/এএইচআর

এই বিভাগের আরো সংবাদ