বন্দুকধারীর গুলিতে আফগানিস্তানের মসজিদে নিহত ৭
রবিবার, ৩১শে মে, ২০২০ ইং
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » App Home Page

বন্দুকধারীর গুলিতে আফগানিস্তানের মসজিদে নিহত ৭

আফগানিস্তানের পারওয়ান মসজিদে ঢুকে গতকাল মঙ্গলবার সন্ধ্যায় এলোপাথাড়ি গুলি চালায় বন্দুকধারীরা। নামাজ আদায়ের সময় নিরীহ নাগরিকদের উপর অতর্কিতে এই হামলা চালানো হয়। এই হামলায় ৭ জন নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন অন্তত ১২জন।

বন্দুকধারীরা আফগানিস্তানের চারিকর শহরের পারওয়ান মসজিদে ঢুকে হামলা চালায়। মুসল্লিরা এসময় রমজানের ইফতার শেষে মসজিদে মাগরিবের নামাজ আদায় করছিলেন।

কোন জঙ্গি সংগঠন এই হামলার দায় নেয়নি। তবে জানা গেছে, যে এলাকায় এই হামলা হয়েছে, সেটি তালিবান অধ্যুষিত।

তালেবানদের মুখপাত্র জবিউল্লাহ মুজাহিদ ‘খাম্মা প্রেস’-এর কাছে দাবি করে, নিরাপত্তা বাহিনীর জওয়ানরা ঢুকেই নিরীহদের গুলিতে ঝাঁঝরা করেছে। এদিনের ঘটনায় তালেবানদের কোনও যোগ নেই। একইসঙ্গে তারা এই হামলার দায় আফগান নিরাপত্তা বাহিনীর উপর চাপিয়েছে। আফগানিস্তানের প্রথম সারির একটি সংবাদ সংস্থায় তালেবান এক নেতা দাবি করেন, নিরাপত্তা বাহিনীই এই হামলার জন্য দায়ী।

এর আগে ২০১৯ সালের অক্টোবরে আফগানিস্তানের পশ্চিমাঞ্চলের এক মসজিদে জুমার নামাজের সময় বিস্ফোরণে কমপক্ষে ৬২ জন নিহত হয়েছিলেন।

নানগাহার প্রদেশের গভর্নর আয়াতুল্লাহ খোগিয়ানি সে সময় জানান, মসজিদে নামাজ আদায় করতে আসা নিরীহ মানুষের উপর হামলা হয়। হাসকা মেনা জেলায় জওদারা এলাকার ওই মসজিদের ভিতরে আগে থেকেই বোমা মজুদ করে রাখা হয়েছিল। বিস্ফোরণের তীব্রতায় মসজিদটির ছাদ সম্পূর্ণ উড়ে যায়। এক বছর আগের ওই হামলার দায়ও কেউ স্বীকার করেনি। তবে, আফগান প্রেসিডেন্টের মুখপাত্র এই হামলার জন্য তালেবানদেরই অভিযুক্ত করেছিলেন।

সূত্র: আল জাজিরা

অর্থসূচক/এসএস/এমএস

এই বিভাগের আরো সংবাদ