১৪ ঘণ্টা নৌকা চালিয়ে খাবার পৌঁছে দিচ্ছেন সুপারমার্কেটর মালিক
বুধবার, ২৭শে মে, ২০২০ ইং
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » App Home Page

১৪ ঘণ্টা নৌকা চালিয়ে খাবার পৌঁছে দিচ্ছেন সুপারমার্কেটর মালিক

ভয়াবহ করোনায় বিধ্বস্ত বিশ্ব। এ সংকটে চিকিৎসক, নার্স, চিকিৎসাকর্মীরা করোনার বিরুদ্ধে সামনে থেকে লড়ছেন। অন্য দিকে কিছু মানুষ এ সময়ে অন্যের মুখে খাবার তুলে দিতে, তাদের আশ্রয় দিতে নিঃস্বার্থভাবে কাজ করে যাচ্ছেন। এমনই এক জন আলাস্কার টোসুয়া পার্কার।

যুক্তরাষ্ট্রের অঙ্গরাজ্য আলাস্কার প্রত্যন্ত এলাকার একটি ছোট্ট শহর গুস্তাভাস। সেখানে বসবাস করেন মাত্র ৫০০ জন। তাদের মুদিখানার মালপত্রের জন্য নির্ভর করে থাকতে হয় টোসুয়া পার্কারের সুপারমার্কেট টসকো এর উপর। টসকো সুপারমার্কেটে মালপত্র আসে জুনো শহর থেকে। কিন্তু করোনার জেরে তা বন্ধ। ফলে গুস্তাভাস শহরের মানুষকে হয়তো করোনা উপেক্ষা করে বাইরে গিয়ে রসদ সংগ্রহ করতে হত। কিন্তু শেষ পর্যন্ত তা করতে হয়নি। এগিয়ে এসেছেন পার্কার নিজেই।

আলাস্কা বরফে ঢাকা একটি জায়গা। এই এলাকায় রাস্তা বলে কিছু নেই। যোগাযোগের মাধ্যম ছিল প্লেন অথবা নৌকা। পার্কার তার ছোট বিমান নিয়ে সুপারমার্কেটের জন্য মালপত্র কিনতে যেতেন জুনো শহরে। কিন্তু সম্প্রতি সেই বিমান শহরে ফেরার পথে তুষার ঝড়ের কবলে পড়ে ক্ষতিগ্রস্ত হয়। এরপর একমাত্র উপায় হয়ে দাঁড়ায় জলপথ। নিজের শহরের মানুষের প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র ও প্রতিবেশীদের আবদার মেটাতে পার্কারকে এখন প্রতি সপ্তাহে ১৪ ঘণ্টা করে নৌকা চালিয়ে জুনো শহরে পৌঁছতে হচ্ছে।

পার্কার সংবাদমাধ্যম সিএনএনকে জানিয়েছেন, এটা আমাদের কাছে বড় বিষয় নয়। কারণ এখানকার মানুষ বাঁচার জন্য বেশির ভাগ জিনিস নিজেরাই জোগাড় করে নেন। আর কোন সমস্যা দেখা দিলে আমরা তার জন্য অন্য কারও মুখাপেক্ষী হয়ে থাকি না। নিজেরাই তা সমাধানের চেষ্টা করি। তাই এখন আমাদের যা করতে হচ্ছে, তাতে বেশ আনন্দই পাচ্ছি আমরা।

অর্থসূচক/এসএস/এএএইচআর

এই বিভাগের আরো সংবাদ