আরও দু'দিন খুলনা প্রিন্টিংয়ের চাঁদা নেওয়া হতে পারে
রবিবার, ২০শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » পুঁজিবাজার

আরও দু’দিন খুলনা প্রিন্টিংয়ের চাঁদা নেওয়া হতে পারে

khulna printing, খুলনা প্রিন্টিং

খুলনা প্রিন্টিংয়ের আইপিওতে আবেদনের সময় বাড়তে পারে

খুলনা প্রিন্টিং অ্যান্ড প্যাকেজিং কোম্পানির আইপিও’র শেয়ারের জন্য আবেদন করতে নতুন করে ২ দিন সময় দেওয়া হতে পারে। প্রসপেক্টাসে ঘোষিত সূচি অনুসারে, গত বৃহস্পতিবার আবেদনের সময় শেষ হয়েছে। কিন্তু রিটজনিত জটিলতায় অনেক বিনিয়োগকারী আবেদন করতে না পারায় সময় বাড়ানোর বিষয়টি ভেবে দেখা হচ্ছে। বিএসইসি সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

উল্লেখ, গত রোববার খুলনা প্রিন্টিংয়ের প্রাথমিক গণ প্রস্তাবের (আইপিও) আবেদন ও টাকা জমা নেওয়া শুরু হয়। বৃহস্পতিবার এটি শেষ হওয়ার কথা। কিন্তু বুধবার জনৈক বিনিয়োগকারী কোম্পানিটির বিরুদ্ধে মিথ্যা তথ্য দেওয়ার অভিযোগ এনে হাইকোর্টে একটি রিট আবেদন করে। এর প্রেক্ষিতে আদালত চাঁদা জমা নেওয়াসহ কোম্পানির আইপিও প্রক্রিয়া দুইদিন স্থগিত রাখার নির্দেশ দেয়। পরদিন কোম্পানির আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে চেম্বার জজ আগের নিষেধাজ্ঞা স্থগিত করে। দু’পক্ষের আইনী লড়াইয়ে বিভ্রান্তিকর পরিবেশ তৈরি হওয়ায় অনেক বিনিয়োগকারী আবেদন করতে পারেননি।

জানা গেছে, বৃহস্পতিবার কোম্পানিটির পক্ষে তার ইস্যু ম্যানেজার সোনালী ইনভেস্টমেন্ট বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) কাছে ২ দিন সময় বাড়ানোর আবেদন জানায়। তবে ইতোমধ্যে কোম্পানির চাহিদার চেয়ে অনেক বেশি টাকার আবেদন জমা পড়ায় সময় বাড়ানোর বিষয়ে বিএসইসি কিছুটা দ্বিধাগ্রস্ত।

উল্লেখ, আইপিওতে ৪ কোটি শেয়ার ইস্যু করে ৪০ কোটি টাকা সংগ্রহের প্রস্তাব দিয়েছে খুলনা প্রিন্টিং। কিন্তু ইতোমধ্যে ৩০০ টাকার বেশি আবেদন জমা পড়েছে। আর এ কারণেই সময় বাড়ানোর প্রয়োজন আছে কি-না তা নিয় দোদুল্যমান বিএসইসি। তবে সংস্থার একটি সূত্র জানিয়েছে, বিনিয়োগকারীদের কাছ থেকে আবেদন পেলে নিশ্চিতভাবেই সময় বাড়ানো হবে।

এদিকে ফেসবুককেন্দ্রিক দুটি গ্রুপ ঘোষণা দিয়েছে রোববার তারা আইপিওটির চাঁদা নেওয়ার সময় বাড়ানোর জন্য আবেদন করবে। আর এমনটি হলে নিশ্চিতভাবেই বাড়বে আবেদনের সময়।

এই বিভাগের আরো সংবাদ