নিলামে সাকিবকে ছাড়িয়ে যাবার পথে মুশফিক
শনিবার, ১১ জুলাই, ২০২০
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » App Home Page

নিলামে সাকিবকে ছাড়িয়ে যাবার পথে মুশফিক

করোনা ভাইরাসের বিপর্যস্ত মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছেন জাতীয় দলের তারকা ক্রিকেটার মুশফিকুর রহিম। করোনার বিপক্ষে যুদ্ধের রসদ যোগাতে টাইগার এই উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান নিজের প্রথম ডাবল সেঞ্চুরির ব্যাটটি নিলামে তুলেছেন। দেশীয় ই-কমার্স সাইট পিকাবুর মাধ্যমে অনুষ্ঠিত হচ্ছে নিলামটি।

আগামী টানা তিনদিন ব্যাটটির জন্য বিড করতে পারবেন আগ্রহী ব্যক্তিরা। মুশফিকের ঐতিহাসিক এই ব্যাটের ভিত্তিমূল্য ছিল ৬ লাখ টাকা। শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত নিলামে অংশ নিয়েছেন ৪৩ জন ব্যক্তি। যেখানে দাম উঠেছে ১৯ লাখ ৭৪ হাজার ৬ টাকা।

এর আগে জাতীয় দলের অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান তাঁর বিশ্বকাপে ব্যবহৃত ব্যাটটি নিলামে তুলেছিলেন। প্রথম ক্রিকেটীয় সামগ্রী নিলামে উঠানোর সূত্রপাত করেন তিনিই। তাঁর সেই ব্যাটটি ২০ লাখ টাকায় বিক্রি হয়েছিল। মুশফিক তাঁর নিলামের দ্বিতীয় দিনেই প্রায় ছুঁয়ে ফেলেছেন সাকিবকে। এখন শুধু টপকানোর পালা।

মুশফিকের সঙ্গে একই প্লাটফর্মে নিলামে উঠেছে আকবর আলীর জার্সি-গ্লাভস, নাঈম হাসানের ব্যাট, মোসাদ্দেক হোসেন সৈকতের ব্যাট ও স্মারক সংগ্রহকারী মোঃ জসিম উদ্দিনের ক্যাপ ও ব্যাট। ভারতের বিপক্ষে ৮১ রান করা নাঈম হাসানের এসএস ব্যাটটির ভিত্তি মূল্য ছিল ১ লাখ টাকা। এখন পর্যন্ত তিন জন এই ব্যাটটির দাম হাঁকিয়েছেন এবং সর্বোচ্চ মূল্য উঠেছে সর্বশেষ খবরের ভিত্তিতে ১ লাখ ১৮ হাজার টাকা।

২০১৯ সালে ডাবলিনে ওয়েস্ট ইন্ডিজ এর বিপক্ষে মোসাদ্দেকের ২৭ বলে করা ৫২ রানের ম্যাচ জয়ী এসএস ব্যাটটির ভিত্তি মূল্য ভিত্তি মূল্য ছিল ৩ লাখ টাকা। এখন পর্যন্ত এই ব্যাটটির মূল্য কেউ হাঁকাননি। এদিকে নিলামে উঠানো আকবরের বিশ্বকাপজয়ী জার্সি এবং গ্লাভসের ভিত্তিমূল্য নির্ধারণ করা হয়েছিল ১ লাখ টাকা। শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত ২ জন এই স্মারক দুটির দাম হাঁকিয়েছেন। এবং এখন পর্যন্ত সর্বোচ্চ মূল্য দাঁড়িয়েছে ১ লাখ ১০ হাজার ১ টাকা।

দেড় লাখ টাকা ভিত্তিমূল্য ধরা হয়েছিল স্মারক সংগ্রহকারী মোঃ জসিম উদ্দিনের ব্যাটের এবং ১ লাখ টাকা ধরা হয়েছিল ক্যাপের। শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত দুটি স্মারকই ৪ জন করে দাম হাঁকিয়েছেন। ব্যাটের সর্বোচ্চ দাম উঠেছে ১ লাখ ৭০ হাজার টাকা আর ক্যাপের ১ লাখ ২০ হাজার টাকা।

এর আগে ফেসবুক পেজ অকশন ফর অ্যাকশনের মাধ্যমে নিজের বিশ্বকাপ ব্যাট ২০ লাখ টাকায় বিক্রি করেন সাকিব আল হাসান। গত ওয়ানডে বিশ্বকাপে এই ব্যাট দিয়েই ৮ ম্যাচে ২ সেঞ্চুরি ও ৩ ফিফটিতে ৬০৬ রান করার পাশাপাশি আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে দেড় হাজারের বেশি রান করেছিলেন সাকিব। ব্যাটটি কিনেছিলেন যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী এক বাংলাদেশী।

এছাড়াও গত রবিবার রাতে নিলাম অনুষ্ঠিত হয় সৌম্য সরকার এবং তাসকিন আহমেদের ব্যাট-বলের। সৌম্যর একমাত্র টেস্ট সেঞ্চুরির ব্যাট ও তাসকিন আহমেদের হ্যাটট্রিক করা বলের ভিত্তিমূল্য ছিল ৩ লাখ টাকা করে। শেষ পর্যন্ত তাসকিনের বল ৪ লাখ ও সৌম্যর ব্যাট সাড়ে ৪ লাখে কিনে নেয় দেশের একটি শীর্ষস্থানীয় ব্যাংক।

অর্থসূচক/এএইচআর

এই বিভাগের আরো সংবাদ