আগামি ১০ বছরে দেশ বিজ্ঞানশূন্য হয়ে পড়বে: মোস্তফা ফিরোজ
রবিবার, ২০শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » শিক্ষা

আগামি ১০ বছরে দেশ বিজ্ঞানশূন্য হয়ে পড়বে: আ.স.ম ফিরোজ

আ.স.ম ফিরোজ

সংসদের চিফ হুইপ আ.স.ম ফিরোজ এমপি (ফাইল ছবি)

উপজেলা পর্যায়ের উল্লেখযোগ্য কয়েকটি বিদ্যালয়কে বিজ্ঞানভিত্তিক করা না হলে আগামি ১০ বছরের মধ্যে দেশ বিজ্ঞানশূন্য হয়ে পড়বে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন জাতীয় সংসদের চিফ হুইফ আ.স.ম. ফিরোজ এমপি।

আন্তর্জাতিক খ্যাতি সম্পন্ন পরমাণু বিজ্ঞানী ড. এম. ওয়াজেদ মিয়ার মৃত্যুর পর এর সত্যতা উপলব্ধি করা যাচ্ছে বলে মনে করেন তিনি।

শুক্রবার বেলা ১১টায় সুফিয়া কামাল গণগ্রন্থাগারের সেমিনার কক্ষে ‘ড. ওয়াজেদ মিয়ার ৫ম মৃত্যুবার্ষিকী ও তার স্মৃতি’ শীর্ষক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

ড. ওয়াজেদ মিয়া মেমোরিয়াল ফাউন্ডেশনের আয়োজনে এই অনুষ্ঠানের সার্বিক ব্যবস্থাপনায় ছিলেন সংগঠনের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি এ.কে.এম. ফরহাদুল কবির।

চিফ হুইফ আ.স.ম. ফিরোজ বলেন, পার্শ্ববর্তী দেশগুলো বিজ্ঞানে স্বয়ংসম্পূর্ণ। বিজ্ঞানে আমাদের দুর্বলতার সুযোগ নিয়ে তার আমাদের ওপর প্রভাব বিস্তার করবে। যার ফলে সারা বিশ্ব এগিয়ে যাবে কিন্তু বাংলাদেশ পিছিয়ে যাবে।

তিনি বলেন, সায়েন্স নিয়ে এখন আর কেউ পড়তে চায় না। সবাই মনে করে কমার্স নিয়ে এমবিএ পড়ে খুব সহজেই ভালো চাকরি নিয়ে সংসার করতে পারবে। সরকার বিজ্ঞানের ক্ষেত্রে বাজেট বেশি বরাদ্দের পরেও এমনটি হচ্ছে। অবশ্য বর্তমানে বিজ্ঞান পড়ানোর জন্য উপযুক্ত শিক্ষকও পাওয়া যায় না।

সংগঠনের উপদেষ্টা কবি মুহাম্মদ আবদুল খালেকের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান আলোচক ছিলেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা মণ্ডলীর সদস্য ইউসুফ হোসেন হুমায়ুন। অনুষ্ঠান উদ্বোধন করেন সাবেক মন্ত্রী, স্বাধীনতার ঘোষণাপত্র ও সংবিধান রচয়িতা ব্যারিস্টার এম. আমীর-উল ইসলাম।

এতে বিশেষ অতিথি ছিলেন- বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা মণ্ডলীর সদস্য এস.এম. নুরুন্নবী, বাংলাদেশ মহিলা আওয়ামী লীগের সভানেত্রী আশরাফুন নেছা মোশারফ, কবি জসিম উদ্দিন পরিসদের মহাসচিব চারণ কবি আবু বকর সিদ্দিক।

অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন-আওয়ামী লীগের সহ-সম্পাদক এম.এ. করিম, প্রধানমন্ত্রী কার্যালয়ের মহাপরিচালক ও প্রবন্ধকার ড. মো. মাহমুদুর রহমান, বস্ত্র ও পাট মন্ত্রণালয়ের উপ-সচিব ড. তপন কুমার নাথ, কানাই নাথ চক্রবর্তী প্রমুখ।

এএইচ/ এআর

এই বিভাগের আরো সংবাদ