বাংলাদেশ চতুর্থ, শহরের তালিকায় নারায়ণগঞ্জ ১৭তম
মঙ্গলবার, ২২শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » লিড নিউজ
বায়ুতে দূষণ

বাংলাদেশ ৪র্থ, শহরের তালিকায় নারায়ণগঞ্জ ১৭তম

এভাবে কারখানার ধোঁয়া নারায়ণগঞ্জের বাতাসকে দূষিত করছে সর্বক্ষণ

এভাবে কারখানার ধোঁয়া নারায়ণগঞ্জের বাতাসকে দূষিত করছে সর্বক্ষণ

সতেজ ও নির্মল বায়ুর জন্য যে দেশ একসময় পৃথিবীজুড়ে বিখ্যাত ছিল সে দেশ এখন বায়ু দূষণের দেশে পরিণত হয়েছে। সম্প্রতি বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা কর্তৃক প্রকাশিত প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে, সর্বাধিক দূষিত বায়ুর দেশের মধ্যে বাংলাদেশের অবস্থান চতুর্থ। শুধু তাই নয়, দেশের তিনটি প্রধান শহর বিশ্বের সবচেয়ে দূষিত বায়ুর ২৫টি শহরের মধ্যে স্থান করে নিয়েছে।

বিশ্বব্যাপী ৯১টি দেশের এক হাজার ৬০০ শহরের বায়ুমণ্ডলীয় অবস্থা নিয়ে এই প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। প্রতিবেদনে দেশের সবেচেয়ে দূষিত বায়ুর শহর হিসেবে স্বীকৃত পেয়েছে নারায়ণগঞ্জ। বৈশ্বিক প্রেক্ষাপটে শহরটির অবস্থান ১৭ তম। এছাড়াও সর্বাধিক দূষিত ২৫ শহরের মধ্যে স্থান পেয়েছে গাজীপুর এবং রাজধানী ঢাকা। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার ক্রম অনুযায়ী বিশ্বের মধ্যে শহর দুটির অবস্থান ২১তম এবং ২৩তম। এছাড়াও ১৬০০ শহরের মধ্যে বরিশাল ২৮তম, খুলনা ৩৭তম, রাজশাহী ৩৮তম, চট্টগ্রাম ৫০তম ও সিলেট ৫৭তম অবস্থানে রয়েছে।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার ক্রম অনুযায়ী, বিশ্বের সবচেয়ে দূষিত নগরীর হিসেবে স্বীকৃতি পেয়েছে প্রতিবেশী ভারতের দিল্লি। এছাড়াও শীর্ষ দশের মধ্যে ভারতের আরও পাঁচটি শহর জায়গা করে নিয়েছে। বাকি শহরগুলোর মধ্যে ইরানের একটি ও পাকিস্তানের ৩টি শহর রয়েছে।

সবেচেয়ে দূষিত বায়ুর দেশ হিসেবে শীর্ষে আছে পাকিস্তান। এরপরের স্থান দুটি কাতার ও আফগানিস্তানের। এই তালিকায় বাংলাদেশের অবস্থান চতুর্থ।

এছাড়াও প্রতিবেদনে জানানো হয়, বায়ুতে ধূলোবালির অবস্থান নিয়ে বাংলাদেশের শহরগুলোর মধ্যে শীর্ষে আছে রাজশাহী। বৈশ্বিক প্রেক্ষাপটে শহরটির অবস্থান ২৪তম। রাজশাহীর পরেই ক্রম অনুযায়ী রয়েছে নারায়ণগঞ্জ ও ঢাকা। বায়ুতে ধূলোবালির অবস্থান অনুসারে গাজীপুর ৩৬তম, বরিশাল ৩৮তম, চট্টগ্রাম ৫৭তম ও সিলেট ৮৩তম অবস্থানে রয়েছে।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা জানিয়েছে, বায়ুর সামগ্রিক অবস্থা নিয়ে পরিবেশ অধিদপ্তরের প্রস্তুতকৃত মাসিক পরিসংখ্যানের ওপর ভিত্তি করে দেশের শহরগুলো নিয়ে এই প্রতিবেদন তৈরি করা হয়েছে।

সংস্থাটি আরও জানিয়েছে, বিশ্বব্যাপী ৯০ শতাংশ নগরবাসী বায়ু দূষণের শিকার হবেন। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার মতে, মানুষের মৃত্যুর জন্য এককভাবে সবচেয়ে বেশি দায়ী বায়ু দূষণ। বায়ু দূষণের কারণে হৃদরোগ, শ্বাসপ্রশ্বাসের সমস্যা ও ক্যানসারের মতো দূরারোগ্য ব্যাধির প্রাদুর্ভাব দেখা দিতে পারে সতর্ক করে দিয়েছে সংস্থাটি।

উল্লেখ্য, গত মার্চে প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে সংস্থাটি জানায়, ২০১২ সালে বিশ্বে বায়ু দূষণের কারণে ৭০ লাখ মানুষের মৃত্যু হয়েছে। গবেষণায় দেখা গেছে, বিশ্বে প্রতি আটজনে একজনের মৃত্যুর সাথে এর সম্পর্ক রয়েছে। বায়ু দূষণের কারণে মানুষ নানা রকমের রোগ-ব্যাধিতে আক্রান্ত হচ্ছে।

এছাড়াও দূষণের কারণে গত বছর দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়া ও পশ্চিমাঞ্চলীয় প্রশান্ত অঞ্চলে প্রায় ৬০ লাখ মানুষের মৃত্যু ঘটেছে। এর মধ্যে প্রায় ৩০ লাখ ৩০ হাজারের মৃত্যু ঘটেছে আভ্যন্তরীন বায়ু দূষণের কারণে। আর আন্তর্জাতিকভাবে বায়ু দূষণের কারণে মৃত্যু ঘটেছে ২০ লাখ

এই বিভাগের আরো সংবাদ