টাকার বদলে জার্সি দান
সোমবার, ৬ই জুলাই, ২০২০ ইং
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » App Home Page

টাকার বদলে জার্সি দান

করোনায় বিপর্যস্তদের পাশে মানবতার হাত বারিয়ে দিচ্ছেন ক্রীড়াবিদরা। আর্থিক সাহায্যের পাশাপাশি অনেকেই তাদের সংগ্রহে থাকা স্মারক তুলছেন নিলামে। কিন্তু করোনা মোকাবিলায় ব্যতিক্রমী পন্থা অবলম্বন করলেন নিউজিল্যান্ডের ওপেনার হ্যানরি নিকোলস।

বিশ্বের খেলোয়াড়রা যখন তাদের ক্রিকেটীয় সামগ্রী নিলামে তুলতে ব্যস্ত ঠিক সে সময় স্রোতের বিপরীতে চললেন নিকোলস। বিশ্বকাপের ফাইনালে তাঁর ব্যবহৃত জার্সিটি তিনি দান করে দিয়েছেন ইউনিসেফ নিউজিল্যান্ডকে। যাতে করে ইউনিসেফ জার্সিটি বিক্রি করে করোনায় দুর্গতদের সাহায্যার্থে ব্যয় করতে পারে।

ইউনিসেফকে দান করে দেওয়া জার্সিটি সর্বোচ্চ দাম হাঁকালেই যে কেউ কিনতে পারবেন এমনটি কিন্তু নয়। ইউনিসেফের তহবিলে একটি নির্দিষ্ট সময় পর্যন্ত যে কেউ দান করতে পারবেন। সময় শেষে লটারি করা হবে যারা দান করেছেন তাদের ভেতর। লটারিতে যিনি জিতবেন জার্সিটির মালিক তিনই হবেন।

কেন সরাসরি নিলাম করলেন না নিকোলস? ব্যাখ্যা হিসেবে নিউজিল্যান্ডের সংবাদমাধ্যম স্টাফকে তিনি বলেন, আমি নিলাম থেকে দূরে থাকতে চেয়েছি, যেখানে সর্বোচ্চ মূল্য হাঁকানোরা জিতে যায়। আমি ব্যপ্তি আরও বাড়াতে চেয়েছি, যেন যে কেউ ৫ কিংবা ১০ ডলার দান করতে পারে এবং লটারিতে জার্সিটি জেতার সুযোগ পেতে পারে। যখন থেকে লকডাউন শুরু হয়েছে, পুরো নিউজিল্যান্ডে পার্সেল খাদ্যের চাহিদা তিনগুণ বেড়ে গেছে। আমি চিন্তা করেছি, দানের জন্য মানুষের আগ্রহ বাড়াতে জার্সিটি ব্যবহার করতে পারি।

আগামী সোমবার পর্যন্ত জার্সিটি নিতে আগ্রহীরা যার যা সামর্থ্য, সে অনুসারে দান করতে পারবেন। এরপর একটি লটারির মাধ্যমে নির্ধারণ করা হবে, কে হবেন জার্সিটির মালিক।

অর্থসূচক/এএইচআর

এই বিভাগের আরো সংবাদ