প্লট বরাদ্দে অনিয়ম: রাজউকের ৪ কর্মকর্তাকে জিজ্ঞাসাবাদ
রবিবার, ২০শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » অপরাধ ও আইন

প্লট বরাদ্দে অনিয়ম: রাজউকের ৪ কর্মকর্তাকে জিজ্ঞাসাবাদ

 

ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

রাজধানী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের (রাজউক) দুই পরিচালকসহ চার কর্মকর্তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। প্লট বরাদ্দে অনিয়মের অভিযোগে দায়ের করা মামলার তদন্ত স্বার্থে তাদেরকে এ জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়।

বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ১০টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্তু রাজধানীর সেগুনবাগিচায় দুদকের প্রধান কার্যালয়ে তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করেন দুদকের উপ-পরিচালক যতন কুমার রায়।

চার কর্মকর্তা হলেন- রাজউকের দুই পরিচালক মো. মুসা ও সৈয়দ নজরল ইসলাম, উপ-পরিচালক ইকবাল আহসান ভূঁইয়া এবং সহকারি পরিচালক আবু মুসা। এছাড়া রাজউকের পরিচালক মো.আব্দুল মান্নানকে জিজ্ঞাসবাদের কথা থাকলেও তিনি দেশের বাইরে থাকায় উপস্থিত হতে পারেননি বলে জানিয়েছেন দুদক সূত্র।

দুদক সূত্র আরও জানায়, গত ২২ এপ্রিল স্ত্রী, মা ও নিজের নামে অবৈধভাবে প্লট বরাদ্দে অনিয়মের অভিযোগে রাজধানীর মতিঝিল থানায় পৃথক তিনটি মামলা (মামলা নং- ৮, ৯, ১০) করা হয়। উপ-পরিচালক যতন কুমার রায় বাদী হয়ে এ মামলাগুলো দায়ের করেন। এবং পরবর্তীতে এ মামলাগুলোর তদন্তের জন্য ওই কর্মকর্তাকে নিয়োগ দেয় কমিশন। তাই দায়ের করা এই তিন মামলার তদন্ত স্বার্থে এসব কর্মকর্তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে।

প্লট বরাদ্দের অনিয়মে এসব কর্মকর্তার সংশ্লিষ্টতা আছে কি-না জানতে চাইলে সূত্রটি জানায়, এখনো কিছু বলা যাচ্ছে না। তবে এ সকল বিষয় খতিয়ে দেখার জন্যই জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। আর তাদের সংশ্লিষ্টতা আছে কি-না তা তদন্ত শেষে বলা যাবে।

উল্লেখ্য, রাজউকের উত্তরা আবাসিক প্রকল্পে শওকত হোসেন তার মা জাকিয়া আমজাদের নামে তিন কাঠার প্লট কেনেন। যার পরবর্তীতে অন্যত্র পাঁচ কাঠার প্লট বরাদ্দ দিতে রাজউকে আবেদন করেন। এবং রাজউক সেই আবেদন গ্রহণ করে ৩ কাঠার প্লটকে ৫ কাঠা করে দেয়। যা রাজউকের বিধি অনুযায়ী অবৈধ। একইভাবে নিজের নামে বরাদ্দকৃত তিন কাঠার প্লটকে অনিয়মের মাধ্যমে তিন কাঠা থেকে পাঁচ কাঠায় রূপান্তর করেন। এবং পূর্বাচল প্রকল্পে স্ত্রী অধ্যক্ষ আয়েশা খানমের নামে সাড়ে ৭ কাঠার প্লট বরাদ্দ নিয়ে প্রথমে ১০ কাঠা এবং পরে তা সাড়ে ১২ কাঠায় উন্নীত করেন। যা ওই তিন মামলার এজহার সূত্রে জানা যায়।

 

এর আগে একই অভিযোগে রাজউক সদ্য বিদায়ী চেয়ারম্যান প্রকৌশলী নুরুল হুদাসহ প্রতিষ্ঠানটির কয়েকজন ঊর্দ্ধতন কর্মকর্তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করে দুদক।

এই বিভাগের আরো সংবাদ