শৈলকুপায় কালবৈশাখী ঝড়ে ৫ শতাধিক বাড়ি বিধ্বস্ত
রবিবার, ২০শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » রংপুর

শৈলকুপায় কালবৈশাখী ঝড়ে ৫ শতাধিক বাড়ি বিধ্বস্ত

কালবৈশাখী ঝড়

ফাইল ফটো

ঝিনাইদহের শৈলকুপায় কালবৈশাখী ঝড়ের আঘাতে ৫ শতাধিক বাড়ি-ঘর বিধ্বস্ত হয়েছে। ঝড়ে ফসল ও গাছ-পালার ব্যাপক ক্ষতি হয়।

আহত হয়েছেন অর্ধশতাধিক মানুষ। ঝড়ের কারণে উপজেলাজুড়ে বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন রয়েছে। ক্ষতিগ্রস্থ মানুষগুলো খোলা আকাশের নিচে বসবাস করছেন।

বুধবার রাত ২টার দিকে ঝিনাইদহের শৈলকুপা উপজেলায় কালবৈশাখী ঝড় আঘাত হানে। প্রায় ৪০ মিনিট ধরে চলে ঝড়ের তাণ্ডব। ঝড়ের আঘাতে ত্রিবেনী, মির্জাপুর, কাঁচেরকোল, দিগনগর ও সারুটিয়া ইউনিয়নের অন্তত ৪০টি গ্রাম লণ্ডভণ্ডহয়ে যায়। এসময় ৫ শতাধিক কাঁচা ও পাকা বাড়ি-ঘর বিদ্ধস্ত হয়ে অর্ধশতাধিক মানুষ আহত হন।

ঝড়ের সাথে শিলাবৃষ্টিতে উঠতি বোরো ধানের ব্যাপকক্ষতি হয়েছে। অনেক স্থানে পাকা ধান মাটির সাথে মিশে গেছে। কয়েকশ হেক্টর জমির কলাগাছ ভেঙ্গে পড়েছে। পানের বরজ ও সবজি ক্ষেতও ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। হাজার হাজার গাছপালা উপড়ে পড়ে। ঝড়ের কারণে বৈদুতিক খুঁটি উপড়ে পড়ে উপজেলাজুড়ে বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন রয়েছে।

এদিকে ঝড়ের পর ক্ষতিগ্রস্থ মানুষগুলো খোলা আকাশের নিচে বসবাস করছেন। এলাকাবাসীঝড়ের এমন তাণ্ডব এর আগে কখনও দেখেননি বলে জানান।

স্থানীয় এক ইউপি চেয়ারম্যান জানান, শুধু তার ইউনিয়নেই দুই শতাধিক বাড়িঘর লণ্ডভণ্ড হয়েছে। এলাকার মানুষগুলো অসহায় হয়ে পড়েছে।

শেখ রফিকুল ইসলাম, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক), ঝিনাইদহ জানান, তবে ঝড়ে কি পরিমাণক্ষয়ক্ষতি হয়েছে তার পরিমাণএখনও নিরুপন করা সম্ভব হয়নি। সকালে জেলা প্রশাসক, শৈলকুপা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও জেলা ত্রাণ কর্মকর্তা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

দুপুরে জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে ক্ষতিগ্রস্তদের মধ্যে নগদ টাকা ও ত্রাণ সহায়তা দেওয়া হয়েছে।

সাকি/

এই বিভাগের আরো সংবাদ