শিল্পের কাঁচামাল নিয়ে বন্দরে আটকে অসংখ্য জাহাজ, বিপাকে উদ্যোক্তারা
শনিবার, ৩০শে মে, ২০২০ ইং
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » App Home Page
জরুরি প্রয়োজনে জাহাজ সঙ্কটে পড়তে পারে দেশ

শিল্পের কাঁচামাল নিয়ে বন্দরে আটকে অসংখ্য জাহাজ, বিপাকে উদ্যোক্তারা

নভেল করোনা ভাইরাস (কোভিড-১৯) এর প্রভাবে বিশ্বের অনেক দেশের মত বাংলাদেশেও জনজীবন প্রায় স্থবির হয়ে পড়েছে। ব্যবসা-বাণিজ্য এবং শিল্প-কারখানাগুলোও প্রায় অচল। এমন সমস্যার মধ্যে শিল্প খাতের জন্য মড়ার উপর খাড়ার ঘা হয়ে উঠেছে সমুদ্র ও নৌবন্দরের অচলাবস্থা। এসব বন্দরে নির্মাণ শিল্পখাতের বিভিন্ন কাঁচামাল নিয়ে আটকে আছে বেশ কিছু মাদার ভেসেল ও পাঁচ শতাধিক লাইটার ভেসেল।

বিভিন্ন সমস্যায় এসব জাহাজ থেকে কাঁচামাল খালাস করা যাচ্ছে না। এতে নানামুখী সঙ্কট তৈরি হচ্ছে। একদিকে এমন দুর্দিনে শিল্প উদ্যোক্তাদেরকে জাহাজের বাড়তি ভাড়া ও জরিমানা গুনতে হচ্ছে; অন্যদিকে জাহাজগুলো খালি না হওয়ায় জরুরি প্রয়োজনে দেশের জন্য প্রয়োজনীয় জাহাজ না-ও পাওয়া যেতে পারে।

নির্মাণ খাত সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন সূত্র থেকে জানা গেছে, দেশের বন্দরগুলোতে বেশ কিছু মাদার ভেসেল ও লাইটার জাহাজ পণ্য খালাসের অপেক্ষায় অনেক দিন ধরে আটকে আছে। একদিকে প্রশাসনিক বাঁধা, অন্যদিকে খালাসী শ্রমিকের সংকটে এ সকল মাদার ভেসেল ও লাইটার ভেসেলে অরক্ষিত অবস্থায় পরে আছে কয়েক লাখ টন কাঁচামাল।

ভেসেলগুলো খালি না করা গেলে দেশের প্রয়োজনীয় বা জরুরী মুহূর্তে অত্যাবশ্যকীয় পণ্যসামগ্রী নদী বা সাগর পথে বহন করার জন্য মাদার ভেসেল বা লাইটার ভেসেলের অভাব দেখা দিবে। উদ্যাক্তারা বলছেন, অবিলম্বে এই ভেসেলগুলো থেকে কাঁচামাল খালাস করে এগুলো দেশের প্রয়োজনে জরুরী পণ্য সামগ্রী বহনের জন্য প্রস্তুত রাখা উচিত।

এ বিষয়ে বাংলাদেশ সিমেন্ট ম্যানুফ্যাকচারার্স এসোসিয়েশনের সভাপতি মোঃ আলমগীর কবির বলেন, শুধু শিল্পের কথা চিন্তা করে নয়, দেশের প্রয়োজনীয় মুহূর্তে যাতে মাদার ভেসেল ও লাইটার ভেসেলগুলো ব্যবহার করা যায়, সে বিষয়টি বিবেচনায় নিয়েও কর্তৃপক্ষের উচিত আটকে পরা ভেসেলগুলো থেকে কাঁচামাল খালাসের সুযোগ তৈরি করে দেয়া।

তিনি বলেন, খালাসের অপেক্ষায় থাকা এসকল মাদার ভেসেল যতদিন বন্দরে অপেক্ষমাণ থাকবে, আন্তর্জাতিক নৌ আইন অনুযায়ী আমদানিকারকদের জরিমানা হিসাবে বিপুল পরিমাণ বৈদেশিক মুদ্রা পরিশোধ করতে হবে। কিন্তু এরচেয়েও বেশি বিপদের বিষয় হলো যে সামনে আমাদের রোযা এবং ঈদ আসছে। এই রোযা এবং ঈদকে কেন্দ্র করে খাদ্য সামগ্রির ব্যাপক চাহিদা তৈরি হতে পারে। এই লাইটার ভেসেলগুলো যদি খালি করে প্রস্তুত রাখা না যায়, তাহলে সেটা সবচেয়ে বিপদজনক অবস্থার তৈরি হতে পারে। সে কারণে ভেসেলগুলোর সব মাল খালাস করার জন্য সরকারের সহযোগিতা দরকার। এক্ষেত্রে সরকারের সকল স্বাস্থ্যবিধি মেনেই সেই কাঁচামাল খালাসের ব্যবস্থা গ্রহণ করতে পারব বলে আশা প্রকাশ করছি।

এই বিভাগের আরো সংবাদ