করোনার পর খুলে দেয়ার প্রথম দিনেই ক্ষতবিক্ষত গ্রেট ওয়াল
বৃহস্পতিবার, ৪ঠা জুন, ২০২০ ইং
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » App Home Page

করোনার পর খুলে দেয়ার প্রথম দিনেই ক্ষতবিক্ষত গ্রেট ওয়াল

মহামারি করোনা ভাইরাসের প্রভাবে সাময়িকভাবে বন্ধ ছিলো চীনের গুরুত্বপূর্ণ পর্যটন স্পট গ্রেট ওয়াল বা মহা প্রাচীর। তবে চীনে করোনা প্রভাব কমে আসায় স্থাপনাটিসহ সব পর্যটন কেন্দ্র খুলে দেয়া হয়েছে। কিন্তু গ্রেট ওয়াল খুলে দেয়ার প্রথম দিনেই পর্যটকের আঘাতে ক্ষতবিক্ষত হয়েছে চীনের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ এই স্থাপনাটি।

গেল নভেম্বর থেকে বন্ধ থাকা এই স্থানটি আবার খুলে দেয়া হয় ২৪ মার্চ। করোনার ভয়াবহ থাবায় বন্ধ থাকার পরে পর্যটন কেন্দ্রটি আবার খুলে দেয় চীনা কর্তৃপক্ষ। চালু হওয়ার প্রথম দিনেই এক পর্যটককে দেখা যায় তার হাতের চাবি দিয়ে দেয়ালের গায়ে আঘাত করে যাচ্ছেন অনবরত। এই কর্মকাণ্ডটি সিসি ক্যামেরায় দেখতে পান গ্রেট ওয়ালের নিরাপত্তা কর্মীরা। সাথে সাথে সেই ভিডিওটি ছড়িয়ে দেয়া হয় চীনের সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে। মূহুর্তেই সেটি ভাইরাল হয়ে যায়।

এরকম ঘটনা বারবার কেন ঘটতে থাকে বলে প্রশ্ন করেন উহান লুইয়োজিয়া নামের এক চীনা নাগরিক। চীনের সবচেয়ে জনপ্রিয় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ওয়েইবোতে দাবী উঠে ওই পর্যটককে গ্রেফতার করার।

এই ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে গ্রেট ওয়াল কর্তৃপক্ষ একটি নতুন নির্দেশনা জারি করেছে, যা গ্রেট ওয়ালকে ক্ষতির হাত থেকে রক্ষা করতে পারবে। এই নিয়ম ৬ এপ্রিল থেকে কার্যকর হয়েছে। এই নিয়ম অনুসারে কেউ যদি ইচ্ছাকৃতভাবে ক্ষতিসাধন করে তবে তাকে ৭ ধরণের জরিমানার সম্মুখীন হতে হবে। এছাড়া ওই পর্যটককে কালো তালিকাভুক্ত করা হবে বলেও জানায় কর্তৃপক্ষ।

পৃথিবীর সপ্তম আশ্চর্যের অন্যতম স্থাপনা চীনের প্রাচীর বা গ্রেট ওয়াল। সারাবিশ্বে চীনকে মর্যাদাও এনে দিয়েছে এই অবিশ্বাস্য স্থাপনাটি। কিন্তু গেলো বছরের নভেম্বরে আঘাত হানা নভেল করোনা ভাইরাসের কারণে সাময়িকভাবে বন্ধ করে দেয়া হয় চীনের সব ধরণের পর্যটন স্থান এমনকি এই গ্রেট ওয়ালও। করোনার প্রভাব কমে এলে আবারও খুলে দেয়া হয় সব পর্যটন কেন্দ্র।

অর্থসূচক/এসএ/কেএসআর

এই বিভাগের আরো সংবাদ