তাবলিগ থেকে ফিরে শ্বাসকষ্টে মৃত্যু, কাছে যাচ্ছে না কেউ
বুধবার, ৫ই আগস্ট, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » App Home Page

তাবলিগ থেকে ফিরে শ্বাসকষ্টে মৃত্যু, কাছে যাচ্ছে না কেউ

তাবলিগ থেকে ফেরার তিন দিনের মাথায় আজ বুধবার সকালে রাজশাহীর বাঘা উপজেলায় শ্বাসকষ্ট নিয়ে এক ব্যক্তির মৃত্যু হয়েছে। এলাকাবাসীর সন্দেহ তিনি করোনা সংক্রমণে মারা গেছেন। এমন খবরে মরদেহের কাছে যাচ্ছে না কেউ।

তবে মৃত ব্যক্তি করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছিলেন কি না, তা নিশ্চিত হওয়ার জন্য নমুনা সংগ্রহ করা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন বাঘা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) শাহীন রেজা।

প্রতীকী ছবি

আজ বুধবার (৮ এপ্রিল) সকাল ৬টার দিকে এলাকার একটি মাদরাসায় মারা যান ওই ব্যক্তি। তিনি উপজেলার উত্তর মিলিকবাঘা গ্রামের বাসিন্দা।

মৃত ব্যক্তির বয়স প্রায় ৬০ বছর। তার ছেলে উপজেলার একটি মসজিদের ইমাম। তারা বাবা-ছেলে দুজনই ৪০ দিনের জন্য তাবলিগে গিয়েছিলেন। তিন দিন আগে তারা কুষ্টিয়া থেকে ফিরেছেন। বাঘায় তাদের পরিচালিত একটি মাদ্রাসা রয়েছে। কুষ্টিয়া থেকে ফিরে তারা ওই মাদ্রাসায় উঠেছিলেন। অবশ্য মাদ্রাসাটি এর আগেই ছুটি দেওয়া হয়েছিল। তার বাসা মাদ্রাসা থেকে প্রায় এক কিলোমিটার দূরে। কুষ্টিয়া থেকে ফিরে তারা বাসায় ঢুকেছিলেন কি না, জানা যায়নি।

স্থানীয় লোকজন জানান, ওই ব্যক্তির শ্বাসকষ্ট ছিল। তিনি আজ বুধবার সকালে ওই মাদ্রাসাতেই মারা গেছেন। এদিকে তার মৃত্যুর পর এলাকায় গুজব ছড়িয়ে পড়েছে যে তিনি ভারতে ইজতেমায় গিয়েছিলেন।

এলাকাবাসী বলছেন, তার মৃত্যু করোনায় হয়ে থাকতে পারে। এতে আতঙ্কে কেউ মরদেহের কাছে যাচ্ছেন না। প্রায় ৫ ঘণ্টার বেশি সময় ধরে মরদেহ মাদরাসার এক কক্ষে পড়ে আছে।

ওই বৃদ্ধের ছেলে জানান, তার বাবার মধ্যে কোনো করোনা উপসর্গ নেই। বর্তমান পরিস্থিতির কারণে আলাদাভাবে রাখা হয়েছিল। কিন্তু তারপরও করোনা সন্দেহে বাবার কাছে কেউ যাচ্ছেন না। মরদেহ দাফনের প্রস্তুতি নেয়া হয়েছে।

এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শাহিন রেজা জানান, খবর পেয়ে নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষা-নিরীক্ষার জন্য দায়িত্বরত চিকিৎসককে বলা হয়েছে। তারাই প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেবেন।

অর্থসূচক/কেএসআর

এই বিভাগের আরো সংবাদ