২২২ বছর পর বাতিল হতে পারে হজ
বুধবার, ২৭শে মে, ২০২০ ইং
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » App Home Page

২২২ বছর পর বাতিল হতে পারে হজ

করোনাভাইরাসের প্রবল বিস্তারের কারণে অনিশ্চিত হয়ে পড়েছে হজ পালন। সৌদি আরবসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশে করোনা পরিস্থিতির অবনতি হতে থাকায় এই অনিশ্চয়তা দেখা দিয়েছে।

গত বুধবার সৌদি আরবের হজ বিষয়ক মন্ত্রী আব্দুল বাতেন হজের বিষয় এখনই সিদ্ধান্ত চুড়ান্ত না করে বিশ্বের মুসলিম সম্প্রদায়কে আরও কিছুদিন অপেক্ষা করার আহ্বান জানিয়েছেন। তাতেই প্রথম হজ না হওয়ার আশংকার ইঙ্গিত মিলে। এর মধ্যে সৌদি আরব এবং বিশ্বের অনেক দেশে করোনাভাইরাস পরিস্থিতির আরও অবনতি হয়েছে। তাই শেষ পর্যন্ত এ বছর হজ না হওয়ার সম্ভাবনাই প্রবল হয়ে উঠছে।

এবার হজ বাতিল হলে তা হবে ২২২ বছর পর এমন ঘটনা।এর আগে সর্বশেষ ১৭৯৮ সালে একবার হজ পালন স্থগিত করা হয়েছিল।

বিশ্বের অনেক দেশের মত সৌদি আরবেও করোনাভাইরাস মহামারির অবনতি হচ্ছে। দেশটিতে করোনায় নতুন আক্রান্তের সংখ্যা লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে।পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে গতকাল বৃহস্পতিবার দেশটি পবিত্র দুই শহর মক্কা ও মদিনায় অনির্দিষ্ট কালের জন্য ২৪ ঘণ্টা কারফিউ জারি করা করেছে। আজ দাম্মাম,তায়িফ এবং খাতিফ শহরকেও পূর্ণ সময়ের কারফিউর আওতায় আনা হয়।

দেশটিতে আগামী দিনে করোনা পরিস্থিতির আরও অবনতির আশংকা করা হচ্ছে। অথচ আর চার মাস পরেই দেশটিতে পবিত্র হজ অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা,যা ইসলাম ধর্মে বর্ণিত ৫টি স্তম্ভের একটি।বিশ্বের প্রায় সব দেশ থেকেই ধর্মপ্রাণ মুসলমানরা সৌদি আরব এসে থাকেন।তাই সৌদি আরবের পরিস্থিতির উন্নতি হলেও বিশ্বের অন্যান্য দেশ থেকে যদি করোনাভাইরাসের প্রকোপ একেবারে দূর না হয়,তাহলে ফের সৌদিতে এই ভাইরাস ছড়িয়ে পড়ার আশংকা দেখা দেবে।

বিশেষজ্ঞরা আশংকা প্রকাশ করছেন,করোনা সঙ্কট থেকে মুক্তি পেতে বিশ্বের আর ৩ থেকে ৬ মাস সময় লাগতে পারে।এমনটি হলে কোনভাবেই হজ পালনের সম্মতি দেওয়ার মত ঝুঁকি নেবে না সৌদি আরব।

আরব নিউজ, গালফ নিউজ ও গার্ডিয়ান অবলম্বনে

এই বিভাগের আরো সংবাদ