যুক্তরাষ্ট্রে ১ থেকে ২ লাখ মানুষের মৃত্যু হতে পারে: হোয়াইট হাউস
সোমবার, ২৫শে মে, ২০২০ ইং
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » App Home Page

যুক্তরাষ্ট্রে ১ থেকে ২ লাখ মানুষের মৃত্যু হতে পারে: হোয়াইট হাউস

বিশ্বজুড়ে করোনা ভাইরাস মহামারিতে এখন পর্যন্ত সবচেয়ে বেশি আক্রান্ত হয়েছেন মার্কিন নাগরিকেরা। দেশটিতে ১ লাখ ৮৮ হাজারের বেশি আক্রান্ত শনাক্ত হয়েছেন। আর মারা গেছেন চার হাজারের বেশি মানুষ। এই ভাইরাসের প্রাদুর্ভাবে ইতোমধ্যে মার্কিন অর্থনীতি প্রায় স্থবির হয়ে পড়েছে। কর্মহীন হয়ে পড়েছে লাখ লাখ মানুষ।

মার্কিন স্টক এক্সচেঞ্জগুলোতে তালিকাভুক্ত ৩০টি বড় কোম্পানির গড় সূচক কমেছে ৪০০ পয়েন্টেরও বেশি। অর্থাৎ, বড় প্রতিষ্ঠানগুলোর সূচক কমেছে ১ দশমিক ৯ শতাংশ। গত ১৩৫ বছরের মধ্যে এতোটা খারাপ পরিস্থিতিতে পড়তে হয়নি তাদের।

মার্কিন বিজ্ঞানীরা বলছেন, যেভাবে ভাইরাসটি বিস্তৃত হচ্ছে তাতে শুধু যুক্তরাষ্ট্রেই লক্ষাধিক মানুষের মৃত্যু হতে পারে। কেউ কেউ আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন, ২২ লাখ মানুষের প্রাণ কেড়ে নিতে পারে এই ভাইরাস।

গতকাল ব্রিফিংয়ে হোয়াইট হাউসের করোনা টাস্কফোর্সের কর্মকর্তা ডা. ডেবোরা ব্রিক্স বলছেন, প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেওয়া হলেও যুক্তরাষ্ট্রে এ ভাইরাসে কমপক্ষে এক লাখ থেকে ২ লাখ ৪০ হাজার পর্যন্ত মানুষের মৃত্যু হতে পারে। তবে সোশ্যাল ডিসট্যান্সিং মেনে চলা না হলে যুক্তরাষ্ট্রে মৃতের সংখ্যা হবে ১৫ লাখ থেকে ২২ লাখ পর্যন্ত।

এর আগে গত ২৯ মার্চ সিএনএন-এর সঙ্গে আলাপকালে যুক্তরাষ্ট্রে এ ভাইরাসে ১০ লক্ষাধিক মানুষ আক্রান্ত এবং দুই লাখ মানুষের মৃত্যুর আশঙ্কা প্রকাশ করেন ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব অ্যালার্জি অ্যান্ড ইনফেকশাস ডিজিজের পরিচালক ডা. অ্যান্থনি ফাউসি।

যুক্তরাষ্ট্রের অনেক রাজ্য ও স্থানীয় সরকার কর্তৃপক্ষ ইতোমধ্যে লোকজনের অবাধ চলাচল ও জমায়েতের ওপর কঠোর নিয়ন্ত্রণ আরোপ করেছে। এ ব্যাপারে সবচেয়ে কঠোর অবস্থান নিয়েছে নিউ ইয়র্ক। সেখানে করোনায় মৃতের সংখ্যা ইতোমধ্যেই দেড় হাজার ছাড়িয়েছে। তবে ইলিনয়, লুজিয়ানা, মিশিগান ও ফ্লোরিডাসহ যুক্তরাষ্ট্রজুড়েই বিভিন্ন স্থানে নতুন করে করোনার প্রাদুর্ভাব দেখা দিচ্ছে।

অর্থসূচক/এএইচআর

এই বিভাগের আরো সংবাদ