করোনায় যুক্তরাষ্ট্রে হু হু করে বাড়ছে মৃত্যুর সংখ্যা
বৃহস্পতিবার, ২৮শে মে, ২০২০ ইং
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » App Home Page

করোনায় যুক্তরাষ্ট্রে হু হু করে বাড়ছে মৃত্যুর সংখ্যা

চীনের হুবেই প্রদেশের রাজধানী উহান থেকে ছড়িয়ে পড়া করোনা ভাইরাস ইউরোপ ও আমেরিকায় ভয়াবহ প্রাণঘাতী হয়ে উঠেছে। আক্রান্ত দেশগুলোর মধ্যে ইতালি ও স্পেনের অবস্থা খুবই ভয়াবহ। তবে এখন পর্যন্ত সবচেয়ে বেশি আক্রান্তের সংখ্যা যুক্তরাষ্ট্রে। দেশটিতে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃতের সংখ্যা চার হাজার ছাড়িয়েছে।

যুক্তরাষ্ট্রের জনস হপকিন্স বিশ্ববিদ্যালয়ের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, বাংলাদেশ সময় আজ সকাল পর্যন্ত দেশটিতে এই ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা এক লাখ ৮৯ হাজার ৬১৮। এর মধ্যে ৪ হাজার ৭৯ জনের মৃত্যু হয়েছে। চিকিৎসা নেওয়ার পর সুস্থ হয়ে উঠেছেন ৭ হাজার ১০৯ জন।

দেশটিতে এ ভাইরাসে সবচেয়ে বেশি মানুষের মৃত্যু হয়েছে নিউ ইয়র্কে। সেখানে ইতোমধ্যেই মৃতের সংখ্যা দেড় হাজার ছাড়িয়েছে। ওয়াশিংটন স্কুল অব মেডিসিন বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষকদের আশঙ্কা, যুক্তরাষ্ট্রে এ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হওয়া রোগীর সংখ্যা সর্বোচ্চ হতে পারে এপ্রিলের দ্বিতীয় সপ্তাহে। সেক্ষেত্রে মহামারির চূড়ান্ত পর্যায়ে হাসপাতালের শয্যা সংখ্যা ও প্রয়োজনীয় ভেন্টিলেটরেরও সংকট দেখা দিতে পারে। তবে সবচেয়ে বেশি উপদ্রুত নিউ ইয়র্কে ইতোমধ্যেই ভেন্টিলেটরের সংকট দেখা দিয়েছে।

এদিন নিয়মিত ব্রিফিংয়ে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প বলেন, করোনা মহামারিতে যুক্তরাষ্ট্রের নাগরিকদের জন্য আগামী দুই সপ্তাহ অত্যন্ত কঠিন হতে চলেছে। আমি চাই এর জন্য সবাই প্রস্তুত থাকুক। আশার কথা হচ্ছে যেভাবে বিশেষজ্ঞরা ধারণা করছেন, টানেলের শেষপ্রান্তে হয়তো কিছুটা আশার আলো দেখতে পাবো। তবে এই দুই সপ্তাহ খুবই কষ্টাদায়ক হতে যাচ্ছে।

বর্তমান পরিস্থিতিকে দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সঙ্গে তুলনা করছেন জাতিসংঘ মহাসচিব অ্যান্টোনিও গুতেরেস। তিনি বলেছেন, দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পর পৃথিবীর সামনে সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ সাম্প্রতিক করোনা ভাইরাস। তিনি আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন যে, এই ভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের ফলে যে মন্দা পরিস্থিতি তৈরি হতে যাচ্ছে সে রকমটা সম্ভবত নিকট অতীতে দেখা যায়নি।

বিশ্বের ১৯৯টি দেশ ও অঞ্চলে ছড়িয়ে পড়া প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাসে মৃতের সংখ্যা ৪২ হাজার ছাড়িয়েছে। এ পর্যন্ত মোট আক্রান্তের সংখ্যা আট লাখ ৫৮ হাজার ৭৮৫। এর মধ্যে ৪২ হাজার ১৫১ জনের মৃত্যু হয়েছে। চিকিৎসা গ্রহণের পর সুস্থ হয়ে উঠেছেন এক লাখ ৭৮ হাজার ১১৯ জন।

অর্থসূচক/এএইচআর

এই বিভাগের আরো সংবাদ