পালিয়েও রেহাই পাননি 'সেই' কামিংস, দেহে করোনার লক্ষণ
বৃহস্পতিবার, ৪ঠা জুন, ২০২০ ইং
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » App Home Page
প্রধানমন্ত্রীর করোনা শুনে পালিয়েছিলেন তার উপদেষ্টা

পালিয়েও রেহাই পাননি ‘সেই’ কামিংস, দেহে করোনার লক্ষণ

বরিস জনসনের করোনায় আক্রান্ত হওয়ার খবরে চমকে উঠে ছিলেন তার সিনিয়র উপদেষ্টা ডমিনিক কামিংস। আতঙ্কে তারা বুদ্ধি যেন অনেকটাই লোপ পেয়েছিল। আর তাই তো কাউকে কিছু না জানিয়ে খবরটি শোনার সঙ্গে সঙ্গে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের পেছনের দরজা দিয়ে পালিয়ে গিয়ে ছিলেন তিনি।

কিন্তু পালিয়ে গিয়ে্ করোনা থেকে রেহাই পাননি কামিংস। করোনা তাকে করুণা করেনি। সোমবার তার দেহে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ সনাক্ত হয়েছে। তাতে তাকে রাখা হয়েছে আইসোলেশনে।

ডমিনিক কামিংসের পালিয়ে যাওয়ার ভিডিওঃ

গত শুক্রবার যুক্তরাজ্যের প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন নভেল করোনাভাইরাসে (কোভিড-১৯) আক্রান্ত হন। এ খবরটি জানিয়ে তিনি নিজেই টুইটারে টুইট করেন। এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে মজার ঘটনা ঘটে যায় প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় ১০ ডাউনিং স্ট্রিটে। বরিস জনসনের করোনায় আক্রান্তের খবর শোনামাত্র কাউকে কিছু না বলে, প্রধানমন্ত্রীকেও কিছু না জানিয়ে পেছনের দরজা দিয়ে গোপনে বের হয়ে পালিয়ে যান তার সিনিয়র উপদেষ্টা ডমিনিক কামিংস।

সিসি টিভির ফুটেজে দেখা যায়, ডমিনিক কামিংস প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের পেছনের গেট দিয়ে বের হয়ে হন্তদন্ত হয়ে ছুটে যাচ্ছেন।  পালিয়ে যাওয়ার সময় তার কাঁধে ঝোলানো ছিল ল্যাপটপ ব্যাগ। বাম হাতে সেই ব্যাগটি কোনোরকমে ধরে তিনি ছুটতে থাকেন। প্রায় দৌঁড়াতে দৌঁড়াতে তিনি পার্কিংয়ে থাকা তার গাড়িতে গিয়ে উঠেন।

ডমিনিক কামিংসের এভাবে পালিয়ে যাওয়ার বিষয়টি নিয়ে নেট দুনিয়ায় ব্যাপক হাস্যরোলের সৃষ্টি হয়।


পড়তে পারেন-

প্রধানমন্ত্রীর করোনাঃ খবর শুনেই পালালেন তার উপদেষ্টা


কিন্তু করোনার সংক্রমণ এড়াতে এভাবে পালিয়ে গিয়েও রেহাই পাননি কামিংস। গতকাল সোমবার তার দেহে করোনায় সংক্রমণের নানা লক্ষণ ফুটে উঠেছে।

সিসিটিভির এই ফুটেজ ফাঁস হয়ে গেলে চরম সঙ্কটের মধ্যেও বিষয়টি নিয়ে নেটিজেনরা মশকরায় মেতে উঠেন।

এই বিভাগের আরো সংবাদ