করোনা মোকাবিলা নিয়ে কী বলছেন বিশেষজ্ঞরা?
মঙ্গলবার, ২৬শে মে, ২০২০ ইং
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » App Home Page

করোনা মোকাবিলা নিয়ে কী বলছেন বিশেষজ্ঞরা?

বিশ্বজুড়ে আতঙ্কিত মানুষ। এই আতঙ্কের নাম করোনা ভাইরাস। এই ভাইরাস যেন এখন সবার মাথাব্যথার কারণ হয়ে দাড়িয়েছে। একের পর এক দেশ লকডাউন হচ্ছে। বিশ্ব অর্থনীতিও ধ্বংসের দিকে। এর দ্রুত সংক্রমণ আর মৃতের সংখ্যা যেভাবে বেড়ে চলেছে, তাতে একটা প্রশ্নই এখন সবসময় ঘুরপাক খাচ্ছে। সেটা হল, আমরা কি পারব এই ভয়ঙ্কর ভাইরাসের সঙ্গে যুদ্ধে জয়ী হতে? সেই জয়-পরাজয়ের ফয়সালা হতে কতটা সময় লাগবে?

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, খুব জোর গলায় এই প্রশ্নের উত্তর এখনই দেওয়া যাবে না। কারণ, তেমন প্রত্যয়ী জবাবের জন্য যতটা সময় লাগে করোনাভাইরাসের ক্ষেত্রে এখনও সেই সময়টা পাওয়া যায়নি। তবে ভাইরাস সম্পর্কে আগের অভিজ্ঞতা থেকে তাদের অনুমান, এখন যে বিধ্বংসী রূপে দেখা যাচ্ছে কোভিড ১৯-কে, তিন থেকে ৬ মাস পর হয়তো তার সেই আক্রমণ অনেকটাই নিষ্ক্রিয় হয়ে যাবে।

মেডিসিন বিশেষজ্ঞ নাহিদুজ্জামান সাজ্জাদ বলেন, এতো জলদি কোভিড-১৯ (করোনা ভাইরাস) এর ওষুধ বা টিকা বাজারে আনা সম্ভব হবে বলে আমার মনে হয় না। কারণ, তার জন্য এই ভাইরাস কীভাবে তার আচার, আচরণ, চেহারা, পরিকাঠামো বদলায়, তা বুঝতে অন্তত ৬ থেকে ৯ মাস সময় তো লাগবেই। সেই গবেষণা শেষ হলে তার ভিত্তিতে তৈরি হবে ওষুধ বা টিকা।

তিনি বলেন, করোনাভাইরাস আবার খুব দ্রুত নিজেকে বদলে ফেলছে। তাই একে বুঝে ওঠা আরও কঠিন। ওষুধ বা টিকা বাজারে আনার আগে পর্যাপ্ত ক্লিনিকাল ট্রায়ালেরও প্রয়োজন রয়েছে। তার জন্যও যথেষ্ট সময় লাগবে।

তিনি আরো বলেন, আমাদের দেহের স্বাভাবিক প্রতিরোধ ক্ষমতাই হয়তো এই ভাইরাসকে ধ্বংস করার রাস্তা বের করে ফেলবে। এই ভাইরাসের হঠাৎ আগমনে দিশেহারা হয়ে পড়েছে আমাদের দেহের স্বাভাবিক প্রতিরোধ ব্যবস্থা। তাই যাদের প্রতিরোধ ক্ষমতা আগে থেকেই কম ছিলো তারা এই ভাইরাসের দ্বারা বেশি সংক্রমিত হচ্ছে। তবে একটা সময় পর এই ভাইরাস ধ্বংসের রাস্তাটা নিজেই খুঁজে বের করে ফেলতে পারে আমাদের দেহের প্রতিরোধ ব্যবস্থা।

নাহিদ বলেন, তবে সময়টা কতদিন লাগতে পারে এটা নির্ভুলভাবে বলা সম্ভব নয়। তবে তিন থেকে ছয় মাসের মধ্যেই এটা হতে পারে।

অর্থসূচক/এনএম

এই বিভাগের আরো সংবাদ