এই সময়ে শিশুর একঘেয়ে দূর করতে….
মঙ্গলবার, ২৬শে মে, ২০২০ ইং
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » App Home Page

এই সময়ে শিশুর একঘেয়ে দূর করতে….

দীর্ঘ ছুটিতে বাসায় বসে থাকতে বেশ একঘেয়ে লাগছে। কিন্তু কি করবেন, বাইরে তো বের হওয়ার সুযোগ নেই। তাই ঘরেই শিশুর জন্য এমন পরিবেশ তৈরী করতে হবে, যেন শিশু স্বাচ্ছন্দবোধ করে। অফিস- সংসার সামলে সন্তানকে যথাযথ সময় দেওয়া বেশি কঠিন হয়ে যায়। এই ছুটির দিনগুলোতে পুরোপুরি সময় দিতে পারেন আপনার পরিবারের ছোট্ট সদস্যের প্রতি।

 

*বাইরে যাওয়া যাবে না- এই ধরনের কথা বলবেন না। বরং করোনাভারাসের ক্ষতিকর দিক ও কেন বাইরে বের হওয়া যাবে না সেগুলো বুঝিয়ে বলুন।

*শিশুকে বারবার হাত ধোয়ার অভ্যাস করান, নিজের জামাকাপড় পরিষ্কার রাখতে উৎসাহ দিন। এতে আপনার অনুপস্থিতিতে  নিজের সুরক্ষার ভার ও নিজেই নিতে শিখবে। পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতা জ্ঞানও তৈরি হবে।

* শিশুরা একটু বন্ধুদের সাথে খেলতে বেশি পছন্দ করে। এই সময়টাতে সেই সুযোগ নেই। তাই নিজেই সন্তানের সাথে খেলা করুন। এতে একঘেয়েমি দূর হবে। বাচ্চারাও আনন্দ পাবে।

*এই মুহূর্তে বাইরে গিয়ে বা মাঠে গিয়ে খেলার সুযোগ নেই। তবে এক জায়গায় বসে খেলারও যে আনন্দ রয়েছে সেটা ওকে বুঝিয়ে দিন। বিভিন্ন ধরনের ক্রসওয়র্ড পাজল  বা ওয়ার্ডপ্লের মতো খেলার অভ্যাস করাতে পারেন। এতে  ভাষা এবং বানানের ওপর দক্ষতা তৈরি হবে।

*স্লাইম বা ক্লে কিনে দিতে পারেন শিশুকে। এতে সময় বেশ আনন্দেই কাটবে তার। সৃজনশীলতার চর্চাটাও হয়ে যাবে।

*এখন যেহেতু বাইরে খেলতে যাওয়া বন্ধ, সব সময় বাড়িতে থাকতে থাকতে যেন শিশু টিভি বা ভিডিও গেমে আসক্ত হয়ে না যায় সেদিকে লক্ষ রাখা জরুরি। কার্টুন দেখার নির্দিষ্ট সময় বেধে দিন।

*কালারিং বুক, খাতা, রঙ-পেনসিল বা গল্পের বই নিয়ে সময় কাটান শিশুর সঙ্গে। তাকে গল্প পড়ে শোনান।

*স্কুল বন্ধ থাকলেও যেন রুটিনওয়ার্ক ভুলে না যায় শিশু। প্রতিদিন নির্দিষ্ট সময় স্কুলের সিলেবাস খানিকটা করে পড়াতে পারেন।

*ঘরের কাজে শিশুকে সাহায্য করতে উৎসাহিত করুন।

*যাদের বাসার বারান্দা বা ছাদে ফুল বাগান আছে, তারা এই সময় শিশুকে নিয়ে গাছের পরিচরযা করতে পারেন। এতে শিশুও আনন্দ পাবে, নতুন কিছু শিখবে।

 

অর্থসূচক/এসএ/

 

এই বিভাগের আরো সংবাদ