করোনাঃ মানসিক চাপে জার্মান মন্ত্রীর আত্মহত্যা
বুধবার, ২৭শে মে, ২০২০ ইং
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » App Home Page

করোনাঃ মানসিক চাপে জার্মান মন্ত্রীর আত্মহত্যা

বিশ্বের অনেক দেশের মত জার্মানিতেও নভেল করোনাভাইরাসে (কোভিড-১৯) আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছে। বাড়ছে মৃত্যুর ঘটনাও।যদিও  ইউরোপের দেশ ইতালি, স্পেন ও ফ্রান্সের চেয়ে জার্মানির অবস্থা এখনো বেশ ভাল, তবু স্বস্তিতেও নেই দেশটির সরকার। পরিস্থিতির দ্রুত অবনতি ঘটতে পারে বলে আশংকা করছেন তারা। সব মিলিয়ে দেশের মানুষের মতো সরকারের অনেক নীতিনির্ধারকও ভুগছেন প্রচণ্ড মাসকিক চাপ ও অবসাদে। আর এই অবসাদের শিকার হয়েছেন দেশটির হেসে রাজ্যের অর্থমন্ত্রী থমাস শেফার। মানসিক ধাক্কা সামলাতে না পেরে তিনি আত্মহত্যা করেছেন বলে আশংকা করা হচ্ছে।

জার্মানির পুলিশ আজ শনিবার  (২৮ মার্চ),  রেললাইনের পাশ থেকে তার ছিন্নভিন্ন লাশ উদ্ধার করেছে।

খবর ডয়েচেভেলের

পুলিশ জানিয়েছে, শনিবার জার্মান শহর ফ্রাঙ্কফুট ও মেইঞ্জ এর মাঝামাঝি জায়গায় উচ্চ গতির রেললাইনের উপর একটি লাশ পড়ে থাকতে দেখেন একজন প্যারামেডিকস। লাশটি একেবারে ছিন্নভিন্ন থাকায় তিনি চিনতে পারছিলেন না। তার কাছ থেকে খবর পেয়ে পুলিশ লাশটি উদ্ধার করে। তারাই লাশের পরিচয় নিশ্চিত করে।

করোনার প্রকোপ থেকে অর্থনীতিকে কী ভাবে বাঁচাবেন তা নিয়ে দুশ্চিন্তায় ভুগছিলেন

যদিও কী কারণে থমাস শেফার আত্মহত্যা করেছেন কিংবা তিনি আদৌ আত্মহত্যা করেছেন কি-না সে বিষয়ে নিশ্চিতহওয়া যায়নি। তবে এখন পর্যন্ত পুলিশ ঘটনাটি আত্মহত্যা হওয়ার সম্ভাবনা বেশি বলে মনে করছে। তাদের প্রাথমিক ধারনা, তিনি চলন্ত ট্রেনের সামনে ঝাঁপ দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন। বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

স্থানীয় সংবাদমাধ্যমসূত্রে জানা গিয়েছে, করোনার প্রকোপ থেকে অর্থনীতিকে কী ভাবে বাঁচাবেন তা নিয়ে দুশ্চিন্তায় ভুগছিলেন ৫৪ বছরের থমাস শেফার। করোনা ঠেকাতে আর্থিক সহায়তা নিয়ে সম্প্রতি বিবৃতিও দিতে দেখা যায় তাঁকে।

 

এই বিভাগের আরো সংবাদ