ব্যাংকে সীমিত লেনদেন: টাকা উত্তোলনের চাপই বেশি
মঙ্গলবার, ২৬শে মে, ২০২০ ইং
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » App Home Page

ব্যাংকে সীমিত লেনদেন: টাকা উত্তোলনের চাপই বেশি

প্রথম দিনের মতো সীমিত লেনদেন শেষ করেছে ব্যাংক। তবে অন্যান্য দিনের তুলনায় শাখাগুলোতে গ্রাহক উপস্থিতি ছিল খুবই কম। টাকা জমা দেওয়ার চেয়ে উত্তোলনের চাপটাই ছিল বেশি। সংশ্লিষ্টরা বলছেন, সাধারণ ছুটি ঘোষণার পর অনেক গ্রাহকই ঢাকা ছেড়েছেন। তাই গ্রাহক উপস্তিতির পাশাপাশি লেনদেনের পরিমাণও কমে এসেছে।

এবিষয়ে সোনালী ব্যাংকের মতিঝিল শাখার ব্যবস্থাপক মোহাম্মদ মোদাসসের হাসান জানান, অন্যান্য দিনের তুলনায় আজকের (২৯ মার্চ) লেনদেনের পরিমাণ ছিল খুবই কম। বাংলাদেশ ব্যাংক ঘোষীত দুই ঘণ্টায় আমাদের শাখাতে মোট লেনদেন হয়েছে ৯৩ জন। টাকার অংকে যার পরিমাণ মাত্র ৭৮ লাখ। এছাড়া গ্রাহক নিরাপত্তার জন্য সব ধরনের ব্যবস্থা নিয়েছে সোনালী ব্যাংক। হ্যান্ড স্যানিটাইজারসহ থার্মাল স্ক্যানারের ব্যবস্থা করা হয়েছে। শাখার নিরাপত্তায় নিকটবর্তী থানার সঙ্গে যোগাযোগ করেছেন ব্যবস্থাপক।

করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাব ঠেকাতে সরকার ২৬ মার্চ থেকে ৪ এপ্রিল পর্যন্ত সরকারি-বেসরকারি সব প্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষণা করেছে। তবে এর মধ্য ২৯ মার্চ থেকে ২ এপ্রিল পর্যন্ত সাধারণ ছুটি। এর আগে ২৬ মার্চ স্বাধীনতা দিবস ও পরে ২৭ ও ২৮ মার্চের সাপ্তাহিক ছুটিও যোগ হবে। এ ছাড়া ৩ ও ৪ এপ্রিল সাপ্তাহিক ছুটি এ ছুটির সঙ্গে যোগ হবে। কিন্তু গ্রাহকের লেনদেনের সুবিধার্থে সাধারণ ছুটির সময় লেনদেনের জন্য দুই ঘণ্টা খোলা রয়েছে ব্যাংক।

এর আগে গত ২৪ মার্চ (মঙ্গলবার) এ বিষয়ে প্রজ্ঞাপন জারি করে বাংলাদেশ ব্যাংক।

প্রজ্ঞাপনে বলা হয়, শুধু নগদ জমা ও উত্তোলনের জন্য অনলাইন সুবিধা থাকা ব্যাংকগুলো গ্রাহকদের লেনদেনের সার্বিক সুবিধা নিশ্চিত করে শাখাগুলোর মধ্যে দূরত্ব বিবেচনায় নিয়ে প্রয়োজনীয়সংখ্যক শাখা খোলা রাখা যাবে। অনলাইন সুবিধা ছাড়া ব্যাংকের শাখাগুলো শুধু নগদ জমা ও উত্তোলনের জন্য খোলা রাখা যাবে। জরুরি বৈদেশিক লেনদেনের জন্য এডি শাখাগুলো খোলা রাখা যাবে। এটিএম ও কার্ডের মাধ্যমে লেনদেন চালু রাখার সুবিধার্থে এটিএম বুথগুলোয় পর্যাপ্ত নোট সরবরাহ রাখতে হবে এবং সার্বক্ষণিক চালু রাখার প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিশ্চিত করতে হবে।

অর্থসূচক/জেডএ/কেএসআর

এই বিভাগের আরো সংবাদ