চার্জ ছাড়াই বিভিন্ন ব্যাংকের এটিএম থেকে টাকা তোলার সুযোগ
মঙ্গলবার, ২৬শে মে, ২০২০ ইং
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » App Home Page

চার্জ ছাড়াই বিভিন্ন ব্যাংকের এটিএম থেকে টাকা তোলার সুযোগ

করোনা ভাইরাস সংকটের সময়ে কার্ড ব্যবহারকারীদের জন্য বিশেষ সুবিধার ব্যবস্থা করেছে বেশ কয়েকটি ব্যাংক। এর মধ্যে- ইউসিবি, এবি ব্যাংক, সিটি ব্যাংক, আইএফআইসি ব্যাংক, ঢাকা ব্যাংক ও এনআরবি ব্যাংক অন্যতম। যে কোনো ব্যাংকের এটিএম কার্ড ব্যবহারকারীরা বিনা খরচে এখন এ সকল ব্যাংকের বুথ থেকে টাকা উঠাতে পারবেন। এছাড়াও এসব ব্যাংকের কার্ড হোল্ডারদের অন্য ব্যাংকের এটিএম (অটোমেটেড টেলারিং মেশিন) বুথ ব্যবহার করলেও কোনো চার্জ দিতে হবে না।

আজ শনিবার (২৮ মার্চ) ব্যাংক থেকে গ্রাকদের পাঠানো ক্ষুদে বার্তায় এ তথ্য জানায় ইউনাইটেড কমার্শিয়াল ব্যাংক লিমিটেড (ইউসিবি) ও আইএফআইসি ব্যাংক। অন্যদিকে এবি ব্যাংক ও সিটি ব্যাংক এবিষয়ে একটি জাতীয় দৈনিকে বিজ্ঞাপন দিয়ে এই খবর নিশ্চিত করেছে।

ক্ষুদে বার্তায় বলা হয়েছে, যে কোনো ব্যাংকের এটিএম বুথে ইউসিবির ডেবিট কার্ড কোনো প্রকার চার্জ ছাড়াই ব্যবহার করা যাবে। এছাড়া ইউসিবির শাখায় চার্জ ছাড়াই অনলাইন সেবা প্রদান করা হবে।

গ্রাহকদের একই রকম ক্ষুদে বার্তা পাঠিয়েছে আইএফআইসি ব্যাংক। এছাড়াও ঢাকা ব্যাংক ও এনআরবি ব্যাংক ই-মেইল ও মেসেজের মাধ্যমে গ্রাহদের বিষয়টি জানিয়েছে।

বাংলাদেশ ব্যাংকের নির্দেশনা অনুযায়ী, এক ব্যাংকের কার্ড দিয়ে অন্য ব্যাংকের এটিএম বুথ ব্যবহার করে টাকা তুললে প্রতিবার লেনদেনের জন্য গ্রাহককে (এটিএম কার্ডধারী) ভ্যাটসহ সর্বোচ্চ ১৫ টাকা করে দিতে হয়। আর পাঁচ টাকা দেয় কার্ড ইস্যুকারী ব্যাংক। আর গ্রাহক যদি তার ব্যাংক হিসাবের সংক্ষিপ্ত বিবরণী বা স্থিতি নিতে চান তার জন্য ভ্যাটসহ অতিরিক্ত পাঁচ টাকা চার্জ কাটা হয়।

গ্রাহকদের মতে, দুর্যোগের এ সময়ে অত্যন্ত ভালো পদক্ষেপ নিয়েছে ইউসিবি। এতে সহজেই পাশের যে কোনো বুথ থেকে টাকা তুলে প্রয়োজন মেটানো যাবে। ইউসিবির বুথে যাওয়ার প্রয়োজন হবে না।

অন্যদিকে এবি ব্যাংক প্রকাশিত বিজ্ঞাপনে বলা হয়, করোনা ভাইরাসের মাহামরী পরিস্তিতিতে গ্রাহক সেবায় এবি ব্যাংকের বিশেষ উদ্যোগ এটি। দেশব্যাপী সকল ব্যাংকের নেটওয়ার্কে এটিএম চার্জ ফ্রি করা হয়েছে। বর্তমান পরিস্থিতি বিবেচনায় গ্রাহকদের সুবিধার্থে যে কোন ব্যাংকের টাকা উত্তোলনের জন্য কোনো চার্জ কাটা হবে না। এছাড়াও গ্রাহকদের নিরাপত্তার স্বার্থে এবি ব্যাংক ১ লাখ বা তার উপরের অংকের টাকা জমার ক্ষেত্রে গ্রাহাকের অফিস বা বাসা থেকে নিজস্ব ব্যবস্থাপনায় সে টাকা সংগ্রহ করবে ব্যাংক।

এদিকে বিশ্বব্যাপী মাহামারি করোনা ভাইরাসের বিস্তাররোধে অনলাইনে লেনদেন উৎসাহিত করতে বিশেষ ছাড় ঘোষণা করেছে বাংলাদেশ ব্যাংক। এখন মোবাইল ফিন্যানশিয়াল সার্ভিস(এমএফএস) বা মোবাইল ব্যাংকিংয়ে নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্যাদি ও ওষুধ ক্রয়ে কোনো ধরনের চার্জ না কাটার নির্দেশ দিয়েছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক। ব্যক্তি হতে ব্যক্তি (পি-টু-পি) লেনদেনে (যে কোনো চ্যানেলে) এ নির্দেশনা মানতে হবে। একই সঙ্গে লেনদেন সীমা ৭৫ হাজার টাকা থেকে বাড়িয়ে দুই লাখ করা হয়েছে। এছাড়া দৈনিক এক হাজার টাকা ক্যাশ আউট সম্পূর্ণ চার্জ বিহীন রাখতে বলা হয়েছে।

অর্থসূচক/জেডএ/কেএসআর

এই বিভাগের আরো সংবাদ