ArthoSuchak
বৃহস্পতিবার, ২রা এপ্রিল, ২০২০ ইং
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » App Home Page

ভিন্ন স্বাদে খেজুরের হালুয়া

হালুয়া এক ধরনের মিষ্টান্ন। হালুয়া শব্দটি আরবী ভাষার থেকে এসেছে যার অর্থ মিষ্টান্ন। পৃথিবীর বিভিন্ন দেশে হালুয়া অনতিমিষ্ট খাদ্য হিসেবে বেশ সমাদৃত। বাংলাদেশে হালুয়া-রুটি কথাটি সুপ্রচলিত। রুটি এবং লুচি হালুয়া সহযোগে খাওয়ার রীতিও প্রচলিত আছে।

হালুয়ার কথা মনে এলেই শব-ই-বরাত এর কথা সবার আগে মনে পড়ে। শব-ই-বরাত উপলক্ষ্যে বিভিন্ন প্রকার হালুয়া খাওয়ার প্রচলনও রয়েছে আমাদের দেশে– যেমন বুটের ডালের হালুয়া, সুজির হালুয়া, গাজরের হালুয়া, পোস্তো’র হালুয়া ইত্যাদি।

কিন্তু কখনও খেজুরের হালুয়া খেয়েছেন কী? মনে হচ্ছে তো খেজুরের আবার হালুয়া হয় নাকি? খেজুরে রয়েছে অনেক উপকারিতা।

গবেষণায় জানা যায়, সারা বছর খেজুর খাওয়া স্বাস্থ্যের জন্য খুবই উপকারী। এছাড়াও এই ফলটিতে রয়েছে প্রাণঘাতী রোগ নিরাময়ের ক্ষমতা। তাই বলা হয়, দিনে পাঁচটি করে খেজুর খাওয়ার অভ্যাস রাখা উচিত। তাহলে হাজারো ধরনের শারীরিক সমস্যা থেকে মুক্তি পাওয়া সম্ভব। সামনেই শব-ই-বরাত তাহলে তো এই নতুন রেসিপিটা বানানো যেতেই পারে। তবে আসুন জেনে নেওয়া যাক কীভাবে তৈরি করবেন খেজুরের হালুয়া।

উপকরণ:
খেজুর– ৫০০ গ্রাম, গুড়া দুধ– দুই কাপ, চিনি– এক কাপ, ঘি– এক কাপ, চিনা বাদাম গুড়া– এক কাপ, কাজু বাদাম গুড়া– এক কাপ, কাঠবাদাম গুড়া– এক কাপ, গোটা কাজু, পেস্তা ও কাঠবাদাম সাজানোর জন্য।

প্রণালী:

খেজুর দুধের ভিতর দুই ঘণ্টা ভিজিয়ে রাখুন৷ তারপর দানা গুলো ছাড়িয়ে ভালো করে ব্লেন্ড করে নিন৷ এরপর একটি পাত্রে ঘি দিয়ে একে একে খেজুরের পেস্ট, চিনি ও বাদাম গুড়া দিয়ে ভালো করে নাড়তে থাকুন এবং অল্প অল্প করে গুড়া দুধ দিতে থাকুন৷ জমে এলে নামিয়ে পাত্রে ঢেলে ঠাণ্ডা করুন।

তারপর বাদাম কুচি দিয়ে সাজিয়ে পরিবেশন করুন। তৈরি হয়ে গেল খেজুরের হালুয়া।

অর্থসূচক/এনএম

এই বিভাগের আরো সংবাদ