ArthoSuchak
বৃহস্পতিবার, ২রা এপ্রিল, ২০২০ ইং
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » App Home Page

জেনে নিন এক টুকরো বরফের গোপন রহস্য

গরমকাল তো এসেই গেছে। আর গরম মানেই ঘাম। আপনি দেখবেন আপনার যত্ন করে গড়ে তোলা সুন্দর ত্বক ঘামের সঙ্গে সব হারিয়ে ফেলছে। আর কিছু প্রোডাক্ট যে ব্যবহার করবেন, সেটাও তো ওই ঘামের সঙ্গে বেরিয়ে যায়। কিন্তু গরমকালেও আপনার ত্বকের সমস্যা সমাধানের সহজ উপায় আছেই।

কী ভাবছেন? কিসের কথা বলি বা খরচ হয় কিনা বেশি তাই তো? আর টেনশন নেই কোন খরচ বা পরিশ্রম ছাড়াই উপকার পেতে পারেন। তাহলে চলুন আর দেরি না করে আপনাদের জানিয়ে দেই কীভাবে বা কী দিয়ে ত্বকের যত্ন করবেন।

গরমে তো এতোদিন ঠাণ্ডা পানি খাওয়ার জন্য অনেক বার ফ্রিজের কাছে গেছেন। এবার আরেকবার যান তবে পানি নয় বরফ বা আইস কিউব বের করে আনুন। বরফ মানেই ঠাণ্ডা ঠাণ্ডা সরবত। কিন্তু অনেকেই হয়ত জানেন না এক টুকরো বরফ ত্বকের জন্য কতটা গুরুত্বপূর্ণ। যারা ব্রণের সমস্যায় চিন্তিত তাদের জন্য তো খুবই উপকারি। এই এক টুকরো বরফই ফিরিয়ে দিতে পারে আপনার ত্বকের উজ্জ্বলতা। এই বরফকে কাজে লাগিয়েই আপনি হয়ে উঠতে পারেন অপরূপ সুন্দরী। তবে জেনে নিন কিভাবে এক টুকরো বরফ ব্যবহার করবেন। এই বরফই পারে আপনার ত্বকের সব সমস্যা মেটাতে। আপনার কী স্কিন টাইপ জানার দরকার নেই, শুধু বরফে ভরসা রাখুন।

উজ্জলতা বাড়িয়ে দেয়
আমরা প্রত্যেকেই খুব সুন্দর উজ্জ্বল ত্বক চাই। কিন্তু বয়স বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে ত্বকের চামড়াও সংকুচিত হতে থাকে। ত্বকে এক প্রকার টানটান ভাব চলে যায়। আর এই ত্বকেই উজ্জলতা আর টানটান ভাব ফিরিয়ে আনতে প্রয়োজন কী জানেন? ত্বকে রক্ত সঞ্চালন। রক্ত সঞ্চালন হলে আপনার ত্বকে অক্সিনের প্রবাহ বেড়ে যায়। আর এই অক্সিজেনই ভিতর থেকে ত্বক সুন্দর রাখবে। এক্ষেত্রে একটা কাপড়ের মধ্যে এক টুকরো বরফ নিন। তারপর সেটাকে বেশ কিছুক্ষণ ধরে মুখে ঘষুন। এতে বয়সের ছাপ, বলিরেখা দূর হবে সহজেই। আর রক্তচলাচলও বেড়ে যাবে।

প্রোডাক্ট ও মেকআপ এর রহস্য
আপনি কী জানেন? বরফ কিন্তু আমাদের নিত্যদিন ব্যবহারকৃত প্রোডাক্টের কার্যকারিতা বাড়িয়ে দেয়। তবে এটা নিশ্চয়ই শুনে এসেছেন যে কোন কিছু মুখে লাগালে তার উপর বরফ বা আইস কিউব দেওয়া ভালো। আসল কথা হলো ক্রিম, সিরাম বা যেসব প্রোডাক্টই আমরা ব্যবহার করিনা কেন সেটাকে আমাদের ত্বকের গভীরে নিয়ে যেতে বরফ বা আইস কিউবই সাহায্য করে। তাহলে আজ থেকেই লেগে পড়ুন, রাতে নাইট ক্রিম মেখে তার উপর একটা বরফ বা আইস কিউব ঘষুন। দেখবেন উপকার পাবেন। এবার আসুক মেকআপের কথা, মেকআপে সবাইকেই সুন্দর লাগে, তবে এই সৌন্দর্যটা বেশিক্ষণ ধরে রাখাটা গরমের দিন বেশ কষ্টকর। তাই মেকআপ শুরু করার আগে জলদি ছোট্ট একটা কাজ করে নিন৷ এক টুকরো বরফ নিয়ে ত্বকে ঘষে নিন কিছুক্ষণ। তারপর ত্বকটা শুকিয়ে গেলে মেকআপ করা শুরু করুন। দেখবেন এতে আপনার ফাউন্ডেশন ত্বকে পুরোপুরি শোষিত হবে। ফলে সহজে মেকআপ উঠে যাওয়ার সম্ভাবনা থাকবে না। আর আপনার মেকআপ অনেকক্ষণ স্থায়ীও থাকবে।

ব্রণের প্রকোপ বা লাল দাগ দূরীকরণ
প্রচন্ড রোদ ও গরমে ত্বক নাজুক হয়ে পড়ে সহজেই। অত্যন্ত অপরিষ্কার হলে ত্বকে র‌্যাশ ওঠে অনেকের এ সময় রোদে বেশি ঘোরাঘুরি করলে আবার গরমে মুখে লাল দাগ হয়ে যায়। এর কারণ হতে পারে তীব্র রৌদ্র প্রখর আবার সানঅ্যালার্জি। ব্রণের অন্যতম কারণ হল ধুলোবালি ও ময়লা। মুখের লোমকূপে ময়লা জমে গেলে ব্রণ হয়। ব্রণের সমস্যা কম বেশি অনেকেরই থাকে৷ আর মুখে একগাদা ব্রণ থাকলে তা দেখতে ভালো লাগে না। এজন্য বরফ অত্যন্ত কার্যকরী। ঠাণ্ডা বরফ বেশ কিছুক্ষণ ধরে ব্রণর উপর ঘষুন। দেখবেন নিমেষে কমে যাবে আপনার মুখের সমস্ত ব্রণ। নিয়মিত বরফ ঘষলে ব্রণের প্রকোপ থেকে আপনি রেহাই পাবেন। মুখে বরফ থেরাপি ব্যবহারে ব্রণ দূর হয় এবং ধীরে ধীরে ত্বক মসৃণ হয়। আবার লাল দাগ দেখা দিলেও সঙ্গে সঙ্গে এক টুকরো বরফ নিয়ে যেখানে যেখানে লাল হয়েছে সেখানে ঘষুন। এমনটা করলে প্রদাহ কমতে শুরু করবে, ফলে লাল ভাবও ধীরে ধীরে কমে যাবে। লালভাব কেটে গেলে আপনার ত্বক আবার স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরে আসবে।

মুখ বা চোখের ফোলাভাব ও ডার্ক সার্কেল কমায়
ঘুম থেকে ওঠার পর অনেকের মুখ ও চোখ ফুলে থাকে। আবার চোখের নিচে কালিও কিন্তু খুব সাধারণ আর খারাপ সমস্যা। এতে মুখের তো বারোটা বাজিয়েই দেয়, আর সহজে উঠতেও চায় না। তাহলে কোনকিছু না ভেবে কাপড়ে পরিমাণ মতো বরফের টুকরো নিন। তারপর সেই কাপড়ের সাহায্যে বরফটা ভাল করে চোখের তোলায় ঘষতে থাকুন। বেশ কিছুক্ষণ ঘষার পর দেখবেন চোখের ফোলাভাব কমে যাবে। তেমনি ডার্ক সার্কেলের সমস্যাও দূর হবে। বরফ ঘষায় সময় চোখের তলায় রক্ত চলাচল খুব বেড়ে যায়। তাই সমস্যাগুলি কমতে শুরু করে।

ত্বকের তৈলাক্ত ভাব দূর করে আর শুষ্কতাও কমায়
ত্বক তৈলাক্ত হলে মুখ ধোয়ার কিছুক্ষণ পরেই আবার তেলতেলে ভাব চলে আসে। এক্ষেত্রে বরফ টুকরো মুখে ঘষলে অনেক উপকার পাবেন। বরফ ব্যবহারে মুখের লোমকূপ খুলে যায়। ফলে দ্রুত ত্বকের তেল শোষণ করে নেয়। অনেকসময় মুখের ত্বক আর্দ্রতা হারিয়ে শুষ্ক হয়ে যায়। তখন মুখমন্ডলের টিস্যুগুলোতে পানির অভাব হয়। ত্বকের মরা কোষ দূর করতে ও আর্দ্রতা বজায় রাখতে বরফ অত্যন্ত কার্যকরী।

সুতরাং ত্বকের সৌন্দর্য ধরে রাখতে বরফ ব্যবহার করতে পারেন নিয়মিত। এতে আপনার ত্বকের স্বাভাবিক উজ্জ্বলতা বজায় থাকবে এবং ত্বক মসৃণ হবে।

অর্থসূচক/এনএম

এই বিভাগের আরো সংবাদ