মেলেনি আঙুলের ছাপ, ভোট দিতে পারলেন না আ.লীগ প্রার্থী
মঙ্গলবার, ২৬শে মে, ২০২০ ইং
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » App Home Page

মেলেনি আঙুলের ছাপ, ভোট দিতে পারলেন না আ.লীগ প্রার্থী

ঢাকা-১০ আসনের উপনির্বাচনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী শফিউল ইসলাম আঙুলের ছাপ ও জাতীয় পরিচয়পত্রের নম্বর না মেলায় ভোট দিতে পারেননি। তিনি রাজধানীর উত্তরার ভোটার। মাইগ্রেট করে এ আসনের ভোটার হয়েছেন।

আজ শনিবার (২১ মার্চ) সকাল ৯টা ৫০ মিনিটে লেকসার্কার উচ্চ বালিকা বিদ্যালয় কেন্দ্রে আসেন এই প্রার্থী। বেলা পৌনে ১১টা পর্যন্ত তিনি ভোট দিতে পারেননি।

প্রথমে ছবিযুক্ত তালিকা দেখে তার পরিচয় শনাক্ত করা হয়। কিন্তু ফিঙ্গারপ্রিন্ট না মেলায় জটিলতা সৃষ্টি হয়। পরে বাইরে রাখা প্রার্থীর গাড়ি থেকে ভোটার আইডি কার্ড নিয়ে আসা হয়। এতেও কাজ হয়নি। মেশিন অফ করে চালু করা হয়। নির্বাচনি কর্মকর্তারা তার কাছে থাকা অন্য একটি কার্ড দিয়েও চেষ্টা করেন। টিস্যু দিয়ে আঙুল মুছে ম্যাচ করানোর চেষ্টা করা হয়। তাতেও কাজ হয়নি। অন্য আরেকটি মেশিনেও ট্রাই করা হয়, কিন্তু কাজ হয়নি।

৪০ মিনিটের চেষ্টায় ব্যর্থ হয়ে এই প্রার্থী বেরিয়ে আসেন এবং ভোটকেন্দ্রের নিচের একটি কক্ষে অপেক্ষা করছেন।

এ ব্যাপারে প্রিসাইডিং কর্মকর্তা আহসানুল হক প্রথম আলোকে বলেন, শফিউল ইসলাম রাজধানীর উত্তরার ভোটার। তিনি মাইগ্রেট করে ঢাকা-১০ আসনের ভোটার হয়েছেন। কিন্তু কোনো সমস্যার কারণে হয়তো ঠিকমতো মাইগ্রেট হয়নি।

ঢাকা-১০ আসনের উপনির্বাচনে ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনের (ইভিএম) মাধ্যমে ভোটগ্রহণ চলছে। শনিবার (২১ মার্চ) সকাল ৯টা থেকে ভোট শুরু হয়, শেষ হবে বিকাল ৫টায়। ইভিএম ব্যবহারে করোনা ভাইরাস সংক্রমণের ঝুঁকির কথা জানিয়েছে স্বাস্থ্য অধিদফতর। তবে হাতের মাধ্যমে যাতে জীবাণু না ছড়ায় সেজন্য ভোটকেন্দ্রে সেনিটাইজার ও টিস্যু রেখেছে নির্বাচন কমিশন।

রাজধানীর ধানমন্ডি, নিউমার্কেট, কলাবাগান, শেরে-ই বাংলা ও লালবাগ থানা এলাকা নিয়ে গঠিত ঢাকা-১০ আসনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন ছয়জন প্রার্থী। তারা হলেন- আওয়ামী লীগের মো. শফিউল ইসলাম মহিউদ্দিন, বিএনপির শেখ রবিউল আলম, জাতীয় পার্টির হাজী মো. শাহজাহান, প্রগতিশীল গণতান্ত্রিক দলের কাজী মুহাম্মদ আবদুর রহিম, বাংলাদেশ মুসলিম লীগের নবাব খাজা আলী হাসান আসকারী ও বাংলাদেশ কংগ্রেসের মো. মিজানুর রহমান।

অর্থসূচক/কেএসআর

এই বিভাগের আরো সংবাদ