নির্বাচন স্থগিত ও আদালত বন্ধের দাবি ফখরুলের
বৃহস্পতিবার, ৯ জুলাই, ২০২০
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » App Home Page

নির্বাচন স্থগিত ও আদালত বন্ধের দাবি ফখরুলের

দেশে করোনা ভাইরাস সংক্রামণের কারণে চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনসহ পাঁচ আসনের উপনির্বাচন স্থগিতের দাবি জানিয়েছে বিএনপি। একই সঙ্গে দেশের আদালতসমূহে ‘যতদিন প্রয়োজন’ বন্ধের দাবি জানিয়েছে দলটি।

আজ বৃহস্পতিবার (১৯ মার্চ) বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর রাজধানীর গুলশানে বিএনপির চেয়ারপারসনের কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে এসব দাবি জানান।

মির্জা ফখরুল বলেন, করোনা সংক্রমণের ঝুঁকির কারণে ঢাকা-১০, বাগেরহাট-৪ ও গাইবান্ধা-৩ আসনের উপনির্বাচন স্থগিত ও আদালতের কার্যক্রম বন্ধ করে দেওয়ার আহ্বান জানাচ্ছি। কারণ, জনগণের প্রত্যাশা অন্তত এই দুর্যোগের সময় নির্বাচন কমিশন মানবিক আচরণ করবে। কিন্তু ইসি অমানবিক আচরণ করছে। আমরা আাশা করবো ইসি তার সিদ্ধান্ত প্রত্যাহার করে পরিস্থিতি বিবেচনায় নিয়ে নির্বাচনগুলো স্থগিত করবে।

তিনি বলেন, করোনা ভাইরাসের আতঙ্কের কারণে বিভিন্ন জায়গা থেকে ইতোমধ্যে নির্বাচন বন্ধ করার কথা এসেছে। কিছুক্ষণ আগে নির্বাচন কমিশন বলছে যে, ২১ তারিখে যে নির্বাচনগুলো আছে তা হবেই এবং ২৯ তারিখের নির্বাচনের বিষয়ে ২১ তারিখ সিদ্ধান্ত নেবে। আমরা এটাকে একেবারেই একটা একপেশে সিদ্ধান্ত মনে করি। জনগণের স্বার্থে, মানুষের বেঁচে থাকার স্বার্থে নির্বাচনগুলোকে আপাতত স্থগিত রাখবেন। পরবর্তীতে নির্বাচনের তারিখ ঘোষণা করা যেতে পারে।

বিএনপির মহাসচিব আরও বলেন, এমনিতে ভোটারের উপস্থিতি যেটা গত নির্বাচনে দেখেছি ৮-৯ শতাংশের বেশি আসবে না। সেক্ষেত্রে এই করোনা ভাইরাসের কারণে ভোটাররা কত শতাংশ আসবে, ভোটের টার্নআউট কী হবে, সেটা আমরা সবাই অনুমান করতে পারি।

নির্বাচন কমিশনের ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী, আগামী ২১ মার্চ ঢাকা-১০, গাইবান্ধ-৩ এবং বাগেরহাট-৪ আসনের উপনির্বাচনে ভোটগ্রহণ করা হবে। এছাড়া চট্টগ্রামসহ বগুড়া ও যশোরের উপনির্বাচনের ২৯ মার্চ ভোট গ্রহণের কথা রয়েছে।

অর্থসূচক/কেএসআর

এই বিভাগের আরো সংবাদ