ArthoSuchak
বুধবার, ১লা এপ্রিল, ২০২০ ইং
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » App Home Page

৮ মাসে চট্রগ্রাম কাস্টমসেই ঘাটতি সাড়ে ১১ হাজার কোটি

রাজস্ব ঘাটতি দিন দিন বেড়েই চলেছে। চলতি অর্থবছরের ৮ মাসেই চট্রগ্রাম কাস্টম হাউজে রাজস্ব ঘাটতির পরিমাণ দাড়িয়েছে ১১ হাজার ৭১৩ কোটি টাকা। রাজস্ব আদায়ে এই বিশাল ঘাটতি নিয়ে বিপাকে পড়েছে জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর)। এদিকে কাস্টম হাউসগুলোতে রাজস্ব আদায়ে ঘাটতির জন্য সরকারের বিভিন্ন প্রকল্পে ব্যবহৃত পণ্যের শুল্ক অব্যহতিকেও দায়ি করছেন এনবিআরের কর্মকর্তারা।

চলতি অর্থবছরের (জুলাই- ফেব্রুয়ারি) আট মাসে কাস্টম হাউসগুলো রাজস্ব আদায়ের নির্ধারিত লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে অনেক পিছিয়ে রয়েছে। জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর) সূত্রে জানা গেছে, চলতি ২০১৯-২০ অর্থবছরের প্রথম ৮ মাসে চট্টগ্রাম কাস্টমস হাউসের রাজস্ব আদায়ের লক্ষ্যমাত্রা ছিল ৪০ হাজার ৭৫৭ কোটি টাকা, আদায় হয়েছে ২৯ হাজার ৪৪ কোটি টাকা। অর্থাৎ হাউসটির রাজস্ব ঘাটতির পরিমাণ দাড়িয়েছে ১১ হাজার ৭১৩ কোটি টাকা।

এদিকে রাজস্ব আদায়ে ঘাটতিতে রয়েছে কাস্টম হাউস বেনাপোল। আলোচ্য সময়ে এই অন্যতম কাস্টম হাউসের লক্ষ্যমাত্রা ছিল ৩ হাজার ৯৬৮ কোটি টাকা, আদায় ২ হাজার ১৭৩ কোটি টাকা। অর্থাৎ ৮ মাসে ঘাটতির পরিমাণ দাড়িয়েছে ১ হাজার ৭৯৫ কোটি টাকা। ঢাকা কাস্টমস হাউসের রাজস্ব আদায়ের লক্ষ্যমাত্রা ছিল ৩ হাজার ৪৮৫ কোটি টাকা, আদায় হয়েছে ২ হাজার ৮৬১ কোটি টাকা। অর্থাৎ রাজস্ব আহরণে ঘাটতির পরিমাণ দাড়িয়েছে ৬২৪ কোটি টাকা।

এনবিআর সূত্র আরো জানায়, চলতি ২০১৯-২০ অর্থবছরের শুরু থেকে লক্ষ্যমাত্রা অর্জন করে আসছে একমাত্র কাস্টম হাউস আইসিডি কমলাপুর। গত আট মাসে হাউসটির রাজস্ব আদায়ের লক্ষ্যমাত্রা ছিল ১ হাজার ৯৭০ কোটি টাকা, আদায় হয়েছে ২ হাজার ৪০ কোটি টাকা। লক্ষ্যমাত্রার তুলনায় বেশি রাজস্ব আদায় হয়েছে ৭০ কোটি টাকা।

এনবিআরের কর্মকর্তারা বলছেন, করোনা ভাইরাসের কারণে চীনা পণ্য আমদানি-রপ্তানি কমেছে। যার প্রভাব পড়ছে কাস্টমসের রাজস্ব আদায়ে। এছাড়া দেশে যেসব মেগা প্রকল্প হচ্ছে এসব মেশিনারিজ আমদানির ক্ষেত্রে শুল্ক সুবিধা থাকার কারণে আমদানি ভলিউম বাড়লেও রাজস্ব আদায় ঐ হারে বাড়ছে না। যার কারণে কাস্টমসে রাজস্ব আদায়ের গতি আগের তুলনায় অনেক ধীরগতি। তবে বছর শেষে সন্তোষজনক প্রবৃদ্ধি অর্জনের আশাবাদ উর্ধতন নির্বাহীদের।

এনবিআর সূত্র জানায়, চলতি অর্থবছরের প্রথম ৮ মাসে মোংলা কাস্টমস হাউসের রাজস্ব আদায়ের লক্ষ্যমাত্রা ছিল ৩ হাজার ৩৬৩ কোটি টাকা, আদায় হয়েছে ২ হাজার ৩৩৮ কোটি টাকা। অর্থাৎ রাজস্ব ঘাটতির পরিমাণ দাঁড়িয়েছে ১ হাজার ২৪ কোটি টাকা। আর পানগাঁও কাস্টমস হাউসের রাজস্ব আদায়ের লক্ষ্যমাত্রা ছিল ৯৩০ কোটি টাকা, আদায় হয়েছে ৫২৫ কোটি টাকা। অর্থাৎ অর্থবছরের আটমাসে এই কাস্টম হাউসের রাজস্ব আদায়ে ঘাটতির পরিমাণ দাঁড়িয়েছে ৪০৫ কোটি টাকা।

রাজস্ব আদায়ের বিষয়ে জানতে চাইলে সিপিডির গবেষণা পরিচালক খন্দকার গোলাম মোয়াজ্জেম বলেন, এনবিআর লক্ষ্যমাত্রা থেকে অনেক পিছিয়ে। এনবিআরের কারিগরি যেসব সংস্কার প্রয়োজন সেদিকে বেশি মনোযোগ দেয়া উচিত। বছর শেষে রাজস্ব লক্ষ্যমাত্রা অর্জিত না হলেও ভালো প্রবৃদ্ধি হোক এটাই প্রত্যাশা।

অর্থসূচক/এমআরএম

এই বিভাগের আরো সংবাদ