আইপিওর আবেদন জমা দিয়েছে রবি
মঙ্গলবার, ১৪ জুলাই, ২০২০
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » App Home Page

আইপিওর আবেদন জমা দিয়েছে রবি

টেলিকম খাতের দ্বিতীয় কোম্পানি হিসেবে পুঁজিবাজারে আসছে রবি আজিয়াটা। কোম্পানিটি প্রাথমিক গণপ্রস্তাবের (আইপিও) মাধ্যমে বাজার থেকে ৩৮৭ কোটি ৭৪ লাখ কোটি টাকা সংগ্রহ করবে।এ উদ্দেশ্যে গতকাল সোমবার কোম্পানিটি পুঁজিবাজার নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনে (বিএসইসি)আবেদন জমা দিয়েছে।

বিএসইসি সূত্রে এই তথ্য জানা গেছে।


অর্থসূচকে প্রকাশিত পুঁজিবাজার ও ব্যাংক-বিমার খবর গুরুত্বপূর্ণ খবরগুলো এখন নিয়মিত পাওয়া যাচ্ছে আমাদের ফেসবুক গ্রুপ Sharebazaar-News & Analysis এ। প্রিয় পাঠক, গ্রুপটিতে যোগ দিয়ে সহজেই থাকতে পারেন আপডেট।


রবির শেয়ারের আভিহিত মূল্য ১০ টাকা। এই দরে বাজারে ৩৮ কোটি ৭৮ লাখ শেয়ার ছাড়বে কোম্পানিটি। এর বাইরে কোম্পানির পরিচালক ও কর্মকর্তা-কর্মচারিদের মধ্যে ইস্যু করা হবে ১৩ কোটি ৬১ লাখ শেয়ার। সব মিলিয়ে কোম্পানিটি ৫২ কোটি শেয়ার ইস্যুর মাধ্যমে প্রায় ৫২৩ কোটি টাকা সংগ্রহ করবে।

উল্লেখ, গত ২১ ফেব্রুয়ারি,শুক্রবার রবির প্যারেন্ট কোম্পানি মালয়েশিয়ার আজিয়াটা গ্রুপ কুয়ালালামপুর স্টক এক্সচেঞ্জ ও দেশটির গণমাধ্যমকে তাদের সহযোগী প্রতিষ্ঠঅপন রবি আজিয়াটার আইপিওতে যাওয়ার তথ্য জানায়।

পরদিন বিষয়টি নিয়ে এক সংবাদ সম্মেলন করে রবি। সেখানে পুঁজিবাজারে আসতে দুটি শর্তের কথা জানায় তারা। এর প্রেক্ষিতে কোম্পানিটির আইপিও নিয়ে কিছু অনিশ্চয়তা দেখা দেয়। কিন্তু শেষ পর্যন্ত কোনো শর্ত ছাড়াই বাজারে আসার জন্য আবেদন জমা দিয়েছে কোম্পানিটি। আর এর মধ্য দিয়ে কেটে গেছে বাজারে আসার অনিশ্চয়তা

রবি আজিয়াটা বাংলাদেশের দ্বিতীয় বৃহত্তম মোবাইল অপারেটর কোম্পানি। কয়েক বছর আগে কোম্পানিটি ভারতীয় কোম্পানি এয়ারটেলের বাংলাদেশ অপারেশ কিনে নিয়েছে। বর্তমানে রবি আজিয়াটা রবি ও এয়ারটেল পরিচালনা করছে। গত ডিসেম্বর শেষে কোম্পানিটির গ্রাহ সংখ্যা ছিল ৪ কোটি ৯০ লাখ।

মালয়েশিয়ান রবি আজিয়াটা গ্রুপ বাংলাদেশের রবি আজিয়াটার ৬৮ দশমিক ৬৯ শতাংশ শেয়ারের মালিক। ভারতি এয়ারটেলের বাংলাদেশ কার্যক্রম একীভুত হওয়ার মাধ্যমে তারা ২৫ শতাংশের মালিক। বাকী অংশের মালিক জাপানি কোম্পানি এনটিটি ডকোমো।

রবির আইপিও ইস্যু ম্যানেজার হিসেবে দায়িত্ব পালন করবে আইডিএলসি ইনভেস্টমেন্ট লিমিটেড।

এই বিভাগের আরো সংবাদ